উক্তি Archives - Bangla Quotes: Bengali Quotes I Bani-বাণী চিরন্তণী [banglaquote.com]

Archive

Category Archives for "উক্তি"

মানুষের জীবনের কিছু বাস্তব কথা

  • কি হবে জীবনে এতো পারফেক্ট মানুষ খুঁজে.! যদি সেখানে ভালোবাসাই না থাকে.!

স্তব্দ রাতগুলো একসময় হাসিতে পূর্ণ থাকতো, আজ নীরবতায় পূর্ণ থাকে।

  • ওই ভালোবাসা কাউকে দিওনা যে ভালোবাসা শুধু তাকে কাঁদাবে।

প্রত্যেক মানুষই প্রেমে পরে, কেউ প্রকাশ করে, কেউবা লুকিয়ে রাখে।

  • জীবনে চলার পথে যাকে সবচেয়ে বেশি ভালবাসবে ।সেই তোমাকে সবচেয়ে বেশি কষ্ট দেবে।

নিন্দা করতে গেলে বাইরে থেকে করা যায় কিন্তু বিচার করতে গেলে, ভিতরে প্রবেশ করতে হয়।

  • সুখী ত তারাই হয় যারা অন্যের বুকে ছুরি মেরে ভালো থাকতে যানে।

হ্যাঁ বদলে গেছি সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে অনুভূতির পাত ছিঁড়ে আমি হারিয়ে গেছি।

  • কষ্ট কে বাস্তব জীবনে নিয়ে সামনের দিকে এগোতেই হবে।

যদি মনের অনুভুতি ঠিক থাকে তাহলে সম্পর্কটাও থাকে আজীবন!

  • কাউকে এতটা কষ্ট দিওনা যে কষ্টে সে সিজদায় বসেও তোমার কথা ভেবে কান্না করে।

যাকে ভালোবাসার নামে আঘাত দিয়ে ফিরিয়ে দিলেন তার চোখের প্রত্যেক ফোঁটা অশ্রু আপনার চলার পথকে পিচ্ছল করে দিবে একদিন।

  • পৃথিবীর সবচেয়ে দুর্বল স্থান হলো মন আর সবচেয়ে দুর্বল অস্ত্র ভালোবাসা।

সুখি হতে চাও? খুব সহজ স্বার্থপর হয়ে যাও অনেক সুখে থাকবে।

  • লক্ষে এগিয়ে যাও একদিন তুমি ঠিকই সফল হবে । আর অপেক্ষাটা তো সুধু সময়ের।

ধৈর্য খুব তেতো কিন্তু এর ফল খুব মিষ্টি।

  • সবাই তোমাকে কষ্ট দিবে, তোমাকে শুধু এমন একজন কে খুঁজে নিতে হবে যার দেয়া কষ্ট তুমি সহ্য করতে পারবে।

আবেগ ভালবাসা দিয়ে সংসার চলে নাহ বাস্তবতা অনেক কঠিন |

  • আপনি যতই ব্যাক্তিত্বসম্পন্ন মানুষই হন না কেন, যতক্ষন আপনার মন ভালো না থাকছে, নিজেকে ফুটিয়ে তুলতে পারবেন না ।

স্বপ্ন তাকে নিয়েই দেখা উচিত যে শুধু স্বপ্ন দেখাবে না স্বপ্নগুলো বাস্তবও করবে!

  • যদি অল্পতেই আপনার মন খারাপ হয়ে যায় তাহলে বুঝে নিবেন পৃথিবীটা আপনার জন্য অনেক কঠিন।

ইচ্ছা হল মন এবং আত্মার যুগ্ম-উপাদান। -স্বামী বিবেকানন্দ।

  • যোগ্য ব্যক্তিরা-ই সমালোচিত হয় আর সমালোচনা করে তো অযোগ্য ব্যক্তিরা।

অতিরিক্ত সমালোচনা করবেন না,অতিরিক্ত সমালোচনা ঘৃণা এবং খারাপ চরিএের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়।

  • “মন দিয়ে মন বুঝা যায়, গভীর বিশ্বাস শুধু নীরব প্রাণের কথা টেনে নিয়ে আসে”-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

তুমি পাহাড়ের চূড়ার মত হয়ো না। কারণ এতে তুমি মানুষকে ছোট দেখবে আর মানুষও তোমাকে ছোট দেখবে।

  • সব কিছু জানা তোমার জন্য আবশ্যক নয়। কিন্তু যা কিছু বলছ তার সবটুকু সম্পর্কে জ্ঞান থাকা আবশ্যক।

প্রকৃত সুখ তখন অনুভূত হয় যখন নিজের কিছু কাজ অন্যের উপকারে আসে।

  • জীবন তোমাকে যেটা দিয়েছে সেটা নিয়ে সন্তেস্ট থাকো, জীবন বড় বিচিত্র।

পৃথিবীতে সবাই ধোয়া তুলসি পাতা শুধু তুলসি গাছে যে পানি দেয় সেই খারাপ।

  • মুখোমুখি সত্য বলা মানুষ গুলো সবার অপ্রিয় হয়।

স্ত্রীর সঙ্গে বীরত্ব করে লাভ কি? আঘাত করলেও কষ্ট, আঘাত পেলেও কষ্ট।—রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

  • পৃথিবীতে কেউ কারো নয়, শুধু সুখে থাকার আশায়- কাছে টানার ব্যর্থ প্রত্যয়,, আর তারপর দূরে চলে যাওয়ার- এক বাস্তব অভিনয় ।

কাউকে অনুসরন করো না তবে সবার থেকে শিক্ষা নাও।

  • মানুষের পুরো জীবনটা হচ্ছে একটা সরল অংক ।যতই দিন যাচ্ছে,ততই আমরা তার সমাধানের দিকে যাচ্ছি ।- হুমায়ূন আহমেদ ।

কাওকে দোষারোপ করোনা ততক্ষন যতক্ষন না তার দোষের নিশ্চিত প্রমান পাও।

  • যত্ন করে কাঁদানোর জন্য খুব আপন মানুষ গুলোই যথেষ্ট!

সৎ পরামর্শের চেয়ে কোনো উপহার অধিক মূল্য নয়।- ইমার সন

  • কারো অতীত জেনোনা, বর্তমানকে জানো এবং সে জানাই যথার্থ ।-এডিসন

একজন কতটা উত্তম সেটা তার চেহারায় নয় বরং কথার মাধ্যমে ফুটে ওঠে।

  • আল্লাহর ভয়ে তুমি যা কিছু ছেড়ে দিবে, আল্লাহ্ তোমাকে তার চেয়ে উত্তম কিছু অবশ্যই দান করবেন।-বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (সঃ)

টেনশনের সময় ছেলেরা কম কথা বলে, মেয়েরা বলে বেশি।-হুমায়ূন আহমেদ

  • বিখ্যাত হওয়ার চেয়ে বিশ্বস্ত হওয়া উত্তম।হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)

ভালবাসার কথাগুলো হয়তো খুব সংক্ষিপ্ত ও সহজ হতে পারে কিন্তু এর প্রতিধ্বনী কখনো শেষ হয় না।-মাদার তেরেসা।

  • গর্ব না করাই গর্বের বিষয় । বড় হয়েও নিজেকে ছোট মনে করা গৌরবজনক ।-প্লেটো

প্রশংসা করতে হবে প্রকাশ্যে কিন্তু সমালোচনা ব্যক্তিগতভাবে।- এ পি জে আবদুল কালাম।

  • মানুষ তখনই ব্যর্থ হয়, যখন সে নিজের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ভুলে যায়।-জওহরলাল নেহরু

“কিছু কিছু ব্যাক্তিগত দুঃখ আছে, যা স্পর্শ করার অধিকার কারোরই নেই।”― হুমায়ূন আহমেদ।

  • একজন মানুষকে সত্যিকারভাবে জানার উপায় হচ্ছে তার স্বপ্নটা জানা।- হুমায়ুন আহমেদ

সবকিছু জেনে ফেলাই জ্ঞান নয়, জ্ঞান হলো কি কি এড়িয়ে যেতে হবে বা বর্জন করতে হবে তা জানা।- জালাল উদ্দীন রুমি।

  • যেদিন বুঝবে রূপটাও মানুষের ছায়া, মানুষ নয়। সেদিনই শুধু ভালোবাসার সন্ধান পাবে।-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

পৃথিবীতে কাহারো অভাবে অধিক দিন কিছুই শূন্য থাকে না নৌকাডুবি-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

  • “সুখে থাকাই জীবনের চরম সার্থকতা নয় বরং কাউকে সুখে রাখতে পারাটাই হলো জীবনের সবচেয়ে বড় সার্থকতা।”

“সততা হল জ্ঞানী হওয়ার বইয়ের প্রথম অধ্যায়।”-থমাস জেফারসন

  • বুদ্ধিমানেরা তখন কথা বলে যখন তাদের কিছু বলার থাকে। বোকারা কথা বলে কারণ তারা ভাবে তাদের কথা বলতে হবে।-প্লেটো

সেই স্বপ্ন দেখার চেষ্টা করো, যেই স্বপ্ন তোমাকে ঘুমাতে দিবেনা।

  • পরিশ্রম তোমার সুন্দর চেহারা ভেঙে সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ে দেবে।

ব্যর্থ হলে ভেঙে পরবেন না।নিজের ওপর বিশ্বাস রাখুন, আপনি পারবেন।

  • আমাদের দেশের শতকরা নব্বই জনই অশিক্ষিত,অথচ কে তাহাদের বিষয় চিন্তা করে? এইসকল বাবুর দল কিংবা তথাকথিত দেশহিতৈষীর দল কি?-স্বামী বিবেকানন্দ

পৃথিবীতে বালিকার প্রথম প্রেমেরমত সর্বগ্রাসী প্রেম আর কিছুই নাই। প্রথমযৌবনে বালিকা যাকে ভালোবাসে তাহার মত সৌভাগ্যবানও আর কেহই নাই। যদিও সে প্রেম অধিকাংশ সময় অপ্রকাশিত থেকে যায়, কিন্তু সে প্রেমের আগুন সব বালিকাকে সারাজীবন পোড়ায়।– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

  • ছেলে এবং মেয়ে বন্ধু হতে পারে, কিন্তু তারা অবশ্যই একে অপরের প্রেমে পড়বে। হয়ত খুবই অল্প সময়ের জন্য, অথবা ভুল সময়ে। কিংবা খুবই দেরিতে, আর না হয় সব সময়ের জন্য। তবে প্রেমে তারা পড়বেই।– হুমায়ূন আহমেদ

ছেলেরা ভালোবাসার অভিনয় করতে করতে যে কখন সত্যি সত্যি ভালবেসে ফেলে তারা তা নিজেও জানেনা। মেয়েরা সত্যিকার ভালবাসতে বাসতে যে কখন অভিনয় শুরু করে তারা তা নিজেও জানেনা।– সমরেশ মজুমদার

  • ভালোবাসা হচ্ছে একধরনের মায়া যেখানে পুরুষ এক নারীকে অন্য নারী থেকে আলাদা করে দেখে আর নারী এক পুরুষকে অন্য পুরুষ থেকে আলাদা করে দেখে– লুইস ম্যাকেন

ভালোবাসা হচ্ছে একটা আদর্শ ব্যাপার আর বিয়ে হচ্ছে বাস্তব। আদর্শ ও বাস্তবতার দ্বন্দ্ব তাই কখনো নিষ্পত্তি হবে না। -গ্যেটে, কবি

  •  ভালোবাসায় পতনের জন্য কোনোভাবেই আমরা মহাকর্ষ-অভিকর্ষকে দায়ী করতে পারি না। – অ্যালবার্ট আইনস্টাইন, বিজ্ঞানী

‘ভালোবাসতে শেখ, ভালোবাসা দিতে শেখ তাহলে তোমার জীবনে ভালোবাসার অভাব হবে না।’……টমাস ফুলার

  • ভালোবাসা এবং যত্ন দিয়ে মরুভূমিতেও ফুল ফোটানো যায় → ..ডেভিড রস ।

 ভালোবাসা এবং ভয় একত্রে মিশ্রিত হতে পারে না → রেগনার্ড।

  •  ভালবাসা এমন একটি প্লাটফরম যেখানে সব মানুষ দাড়াতে পারে। → টমাস মিল্টন

ভালবাসা যা দেয় তার চেয়ে বেশী কেড়ে নেয় । – টেনিসন

  • ভালবাসা তালাবদ্ধ হ্রদয়ের দরজা মুহূর্তে খুলে দেয় । – টমাস

মেয়েরা প্রথমবার যার প্রেমে পড়ে, তাকে ঘৃনা করলেও ভুলে যেতে পারে না। পরিষ্কার জল কাগজে পড়লে দেখবেন তা শুকিয়ে যাওয়ার পড়েও দাগ রেখে যায়….সমরেশ মজুমদার।

  •  সবকিছুর শুরু, মধ্য এবং অন্তই হচ্ছে প্রেম। → নফডেয়ার

 “প্রেমের নিরব স্বপ্ন যত মধুর, তার অর্ধেক মধুরতাও জীবনে আর কিছুতেই নেই।” –টমাস মুর।

  •  “কোন কাছি বা দড়ি অত জোরে আকর্ষণ করতে বা অত শক্ত করে বাঁধতে পারে না, প্রেম যা একটি মাত্র সুতো দিয়ে পারে।” –বার্টন

 “প্রেমের ক্ষেত্রে জয়ী হয়ে কেউ শিল্পী হতে পারে না, বড় জোর বিয়ে করতে পারে।” –ওয়াশিংটন অলসটন।

  • “একই ব্যাক্তির সাথে বহুবার প্রেমে পড়াই হল সার্থক প্রেমের নির্দশন।” –ব্রাটন।

“ছোট ছোট বিচ্ছেদ প্রেমকে গভীর করে আর দীর্ঘবিচ্ছেদ প্রেমকে হত্যা করে।” –মিরবো

  •  “ধোয়া, টাকা আর প্রেম কিছুতেই চেপে রাখা যায় না ঠিক ফুটে বেরুবেই।” –শংকর।

“অনুপস্থিতি প্রেমকে তীক্ষ্ণ করে, উপস্থিতি করে একে শক্তিশালী।” –টমাস ফুলার।

  •  প্রেম সুন্দর কে সৃষ্টি করে আবার প্রেম সুন্দর কে ধ্বংস করে–

যারা প্রেমের মর্ম বুঝেনা এদের কাছে প্রেম ধ্বংসের কারণ

  • প্রেম আছে তবে এই প্রেমের বহক নেই প্রেম আছে বলেই তো পৃথিবীটা এত প্রেমময়।

“সব মানুষ ভালোবাসা অনুভব করে।”

  • ভালবাসার রূপ ভিন্ন । মানুষ যেমন দেখে সেইরকম করে প্রকাশ করে । “যে ভালবাসা যত গোপন, সেই ভালবাসা তত গভীর “

 একটি স্থাপত্যকর্ম সম্পর্কেই আমার কোনো আপত্তি নেই, তার কোনো সংস্কারও আমি অনুমোদন করি না। স্থাপত্যকর্মটি হচ্ছে নারীদেহ।– হুমায়ূন আজাদ

  •  সবাই তোমাকে কষ্ট দিবে, তোমাকে শুধু এমন একজন কে খুঁজে নিতে হবে যার দেয়া কষ্ট তুমি সহ্য করতে পারবে– হুমায়ূন আহমেদ

 পুরস্কার অনেকটা প্রেমের মতো; দু-একবার পাওয়া খুবই দরকার, এর বেশি পাওয়া লাম্পট্য– হুমায়ূন আজাদ

  • প্রতিটি সার্থক প্রেমের কবিতা বলতে বোঝায় যে কবি প্রেমিকাকে পায় নি, প্রতিটি ব্যর্থ প্রেমের কবিতা বোঝায় যে কবি প্রেমিকাকে বিয়ে করেছে– হুমায়ূন আজাদ

 যে নারীকে ঘুমন্ত অবস্থায় সুন্দর দেখায় সেই প্রকৃত রূপবতী– হুমায়ূন আহমেদ

  • যুদ্ধ এবং প্রেমে কোনো কিছু পরিকল্পনা মতো হয় না– হুমায়ূন আহমেদ

 গার্লফ্রেন্ড বিহীন তরুনের পৃথিবীতে বেঁচে থাকা, ঘাসবিহীন মাঠে গরুর পায়চারির মত– হুমায়ূন আহমেদ

  •  প্রেমের মধ্যে ভয় না থাকলে রস নিবিড় হয় না– রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

 প্রেমের কি সাধ আছে বল নিন্দার কাটা যদি না বিধিল গায়ে– লালন

  • কলঙ্ক না লাগে যদি ভালোবেসে লাগে কি ভালো– লালন

 পুঁজিবাদী পর্বের সবচেয়ে বড়ো ও জনপ্রিয় কুসংস্কারের নাম প্রেম– হুমায়ূন আজাদ

  •  শাশ্বত প্রেম হচ্ছে একজনের শরীরে ঢুকে আরেকজনকে স্বপ্ন দেখা– হুমায়ূন আজাদ

 আঁখি মুঞ্জিয়া দেখ রূপ রে,আঁখি মুঞ্জিয়া দেখ রূপ রে আরে দিলের চক্ষে চাহিয়া দেখ বন্ধুয়ার স্বরূপ রে– হাসন রাজা

প্রেম ভালোবাসা নিয়ে বিখ্যাত ব্যাক্তিদের উক্তি

জেনে নিন প্রেম নিয়ে কিছু বিখ্যাত ব্যাক্তিদের বিখ্যাত কিছু উক্তি।

(১) ছেলেরা ভালোবাসার অভিনয় করতে করতে যে কখন সত্যি সত্যি ভালোবেসে ফেলে তারা তা নিজেও জানেনা … মেয়েরা সত্যিকার ভালোবাসতে বাসতে যে কখন অভিনয় শুরু করে তারা তা নিজেও জানেনা – সমরেশ মজুমদার ।

(২) বিশ্বাস করুন,আমি কবি হতে আসিনি,আমি নেতা হতে আসি নি-আমি প্রেম দিতে এসেছিলাম,প্রেম পেতে এসেছিলাম-সে প্রেম পেলামনা বলে আমি এই প্রেমহীন নীরস পৃথিবী থেকে নীরব অভিমানে চির দিনের জন্য বিদায় নিলাম- কাজী নজরুল ইসলাম।

(৩) প্রেম হয় শুধু দেখা ও চোখের ভাল লাগা থেকে, রাগ থেকে প্রেম হয়, ঘৃণা থেকে প্রেম হয়, প্রেম হয় অপমান থেকে, এমনকি প্রেম হয় লজ্জা থেকেও। প্রেম আসলে লুকিয়ে আছে মানবসম্প্রদায়ের প্রতিটি ক্রোমসমে। একটু সুযোগ পেলেই সে জেগে উঠে-হুমায়ূন আহমেদ।

(৪) প্রেমের আনন্দ থাকে স্বল্পক্ষণ কিন্তু বেদনা থাকে সারাটি জীবন-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

(৫) এই পৃথিবীতে প্রিয় মানুষগুলোকে ছাড়া বেঁচে থাকাটা কষ্টকর কিন্তু অসম্ভব কিছু নয়। কারো জন্য কারো জীবন থেমে থাকে না, জীবন তার মতই প্রবাহিত হবে-হুমায়ূন আহমেদ।

(৭) প্রেম মানুষকে শান্তি দেয় কিন্তু স্বস্তি দেয় না-বায়রন।

(৮) কাউকে প্রচন্ডভাবে ভালবাসার মধ্যে এক ধরনের দুর্বলতা আছে। নিজেকে তখন তুচ্ছ এবং সামান্য মনে হয়। এই ব্যাপারটা নিজেকে ছোট করে দেয়- হুমায়ূন আহমেদ।

(৯) প্রেমে পড়লে বোকা বুদ্ধিমান হয়ে উঠে, বুদ্ধিমান বোকা হয়ে যায়-স্কুট হাসসুন।

(১০) মেয়েদের তৃতীয় নয়ন থাকে। এই নয়নে সে প্রেমে পড়া বিষয়টি চট করে বুঝে ফেলে- হুমায়ূন আহমেদ।

(১১) প্রেমের মধ্যে ভয় না থাকিলে রস নিবিড় হয় না-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

(১২) ছেলে এবং মেয়ে বন্ধু হতে পারে, কিন্তু তারা অবশ্যই একে অপরের প্রেমে পড়বে। হয়ত খুবই অল্প সময়ের জন্য, অথবা ভুল সময়ে। কিংবা খুবই দেরিতে, আর না হয় সব সময়ের জন্য। তবে প্রেমে তারা পড়বেই- হুমায়ূন আহমেদ।

(১৩) বিচ্ছেদের দুঃখে প্রেমের বেগ বাড়িয়া উঠে-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

(১৪) যে ভালোবাসা না চাইতে পাওয়া যায়, তার প্রতি কোনো মোহ থাকে না- হুমায়ূন আহমেদ।

(১৫) নারীর প্রেমে মিলিনের গান বাজে, পুরুষের প্রেমে বিচ্ছেদের বেদনা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

(১৬) ছেলেদের জন্য পৃথিবীতে সব চাইতে মূল্যবান হল মেয়েদের হাসি- হুমায়ূন আহমেদ।

(১৭) প্রেমের ক্ষেত্রে জয়ী হয়ে কেউ শিল্পী হতে পারে না, বড় জোর বিয়ে করতে পারে-ওয়াশিংটন অলসটন।

(১৮) ভালবাসা কারো জন্য দীর্ঘ প্রক্রিয়া আবার কারো জন্য স্বল্প। কিন্তু কষ্ট দুটোতেই সমান- হুমায়ূন আহমেদ।

(১৯) একই ব্যাক্তির সাথে বহুবার প্রেমে পড়াই হল সার্থক প্রেমের নির্দশন-ব্রাটন।

(২০) যে ভালবাসা যত গোপন, সেই ভালবাসা তত গভীর- হুমায়ূন আহমেদ।

(২১) দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম প্রেম বলে কিছু নেই। মানুষ যখন প্রেমে পড়ে, তখন প্রতিটি প্রেমই প্রথম প্রেম- হুমায়ূন আজাদ।

(২২) ভালোবাসার জন্য যার পতন হয় সে বিধাতার কাছে আকাশের তারার মত উজ্জ্বল- জনসন।

(২৩) প্রেম হল সিগারেটের মতো, যার আরম্ভ হল অগ্নি দিয়ে, আর শেষ পরিণতি ছাই দিয়ে-জর্জ বার্নার্ড শ।

(২৪) ধোয়া, টাকা আর প্রেম কিছুতেই চেপে রাখা যায় না ঠিক ফুটে বেরুবেই-শংকর।

(২৫) ভালোবাসা পাওয়ার চাইতে ভালোবাসা দেওয়াতেই বেশি আনন্দ- জর্জ চ্যাপম্যান।

(২৬) প্রেম হচ্ছে স্বার্থ সিদ্ধির চরম অভিব্যক্তি- হল.রুক.জ্যাকসন।

(২৭) প্রেম নারীর লজ্জাশীলতাকে গ্রাস করে, পুরুষের বাড়ায়-জ্যা পল বিশার।

(২৮) যে ভালোবাসা পেলো না, যে কাউকে ভালোবাসতে পারলো না সংসারে তার মতো হতভাগা কেউ নেই- কীটস্।

(২৯) ভালোবাসা হচ্ছে একধরনের মায়া যেখানে পুরুষ এক নারীকে অন্য নারী থেকে আলাদা করে দেখে আর নারী এক পুরুষকে অন্য পুরুষ থেকে আলাদা করে দেখে- লুইস ম্যাকেন।

(৩০) ভালোবাসা হচ্ছে একটা আদর্শ ব্যাপার আর বিয়ে হচ্ছে বাস্তব। আদর্শ ও বাস্তবতার দ্বন্দ্ব তাই কখনোনিষ্পত্তি হবে না- গ্যেটে।

(৩১) আমরা কোনো ভাবেই ভালোবাসার ওপর মূল্য নির্ধারণ করতে পারি না, কিন্তু ভালোবাসার জন্য দরকারি সব উপকরণের ওপরমূল্য নির্ধারণ করতেই হবে- ম্যালানি ক্লার্ক।

(৩২) সোনায় যেমন একটু পানি মিশিয়ে না নিলে গহনা মজবুত হয় না, সেইরকম ভালবাসার সঙ্গে একটু শ্রদ্ধা, ভক্তি না মিশালে সে ভালবাসাও দীর্ঘস্থায়ী হয় না- নিমাই ভট্টাচার্য ক্রোধ।

(৩৩) তুমি যদি কাউকে ভালোবাস,তবে তাকে ছেড়ে দাও। যদি সে তোমার কাছে ফিরে আসে,তবে সে তোমারই ছিল।আর যদি ফিরে নাআসে,তবে সে কখনই তোমার ছিল না- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

(৩৪) দুটো জিনিস খুবই কষ্টদায়ক।একটি হচ্ছে, যখন তোমার ভালোবাসার মানুষ তোমাকে ভালোবাসে কিন্তু তা তোমাকে বলে না।। আর অপরটি হচ্ছে, যখন তোমার ভালোবাসার মানুষ তোমাকে ভালোবাসে না এবং সেটা তোমাকে সরাসরি বলে দেয়- সেক্সপিয়ার।

(৩৫) যখন কোন পুরুষ কোন নারীকে ভালবাসে,তখন সে তার জন্য সব কিছু করতে পারে।কেবল তাকে ভালবেসে যেতে পারেনা- অস্কার ওয়াইল্ড।

(৩৬) ভালবাসা যা দেয় তার চেয়ে বেশী কেড়ে নেয়- টেনিসন।

(৩৭) সত্যিকারের ভালোবাসা হল অনেকটা প্রেতআত্মার মতো। এ নিয়ে সবাই কথা বলে,কিন্তু শুধুমাত্র কয়েকজনই এর দেখা পায়- লা রচেফউকোল্ড।

(৩৮) প্রেম/ভালবাসা হল আপেক্ষিক বিষয় কারও জন্য তা স্বর্গ সুখ বয়ে আনে, আবার কাউকে দুখের সাগরে ভাসিয়ে দেয়

(৩৯) প্রেমের পরশে প্রত্যেকেই কবি হয়ে ওঠে… (প্লেটো।)

(৪০) প্রেম প্রকৃতির দ্বিতীয় সূর্য…(জর্জ চ্যাপম্যান।)

(৪১) প্রেম লুকানো পথ চেনে…(জার্মান প্রবাদ।)

(৪২) ভালোবাসা পাওয়ার চাইতে ভালোবাসা দেয়াতেই বেশি আনন্দ…(টমাস ফুলার।)

(৪৩) ভালোবাসতে শেখ, ভালোবাসা দিতে শেখ তাহলে তোমার জীবনে ভালোবাসার অভাব হবে না…টমাস ফুলার।

(৪৪) ঘৃণা অন্ধ, প্রেমের মতই…(টমাস ফুলার।)

(৪৫) কেউ ভালোবাসা পেলে এমন কি সুখ ছাড়াও সে বাঁচতে পারে…দস্তয়েভস্কি।

(৪৬) কোন কিছুকে ভালোবাসা হলো সেটি বেঁচে থাক তা চাওয়া…(কনফুসিয়াস।)

(৪৭) যখন আপনি কাউকে ভালোবাসেন তখন আপনার জমিয়ে রাখা সব ইচ্ছেগুলো বেরিয়ে আসতে থাকে…(এলিজাবেথ বাওয়েন।)

(৪৮) বন্ধুত্ব অনেক সময় ভালোবাসায় পর্যবসিত হয়।

(৪৯) যে নারীকে আমি ভালবাসি তার সাহায্যসমর্থন ছাড়া আমি যেমনটি চাই তেমনি নৃপতিরুপে আমার দায়িত্বের গুরুভার বহন এবং আমার কর্তব্য পালন আমার সাধ্যের অতীত বলে আমার মনে হয়েছে….অষ্টম এডওয়ার্ড।

(৫০) ভালোবাসা যখন অবদমিত হয়, তার জায়গাদখল করে ঘৃণা….হ্যাভনক এলিস।

(৫১) ভালোবাসি আমারা কোন কারন ছাড়াই, কারন ছাড়াই ঘৃণা করি….জাঁ ফ্রাঁসোয়ারেনার।

(৫২) ওহ, এতো ভাল তাকে আমি বেসেছি , ঘৃনার কোন অনুভূতিই না থাকে তার প্রতি….জাঁ রাসিন।

(৫৩) যে ভালোবাসা পেলো না, যে কাউকে ভালোবাসতে পারলো না সংসারে তার মতো হতভাগা কেউ নেই….কীটস্।

(৫৪) ভালোবাসা এবং ভয় একত্রে মিশ্রিত হতে পারে না- রেগনার্ড।

৫৫) মেয়েরা প্রথমবার যার প্রেমে পড়ে, তাকে ঘৃনা করলেও ভুলে যেতে পারেনা। পরিষ্কার জল কাগজে পড়লে দেখবেন তা শুকিয়ে যাওয়ার পড়েও দাগ রেখে যায়…(সমরেশ মজুমদার।)

(৫৬) ভালোবাসার জন্য স্বার্থ ত্যাগে কোন ন্যায় অন্যায় বোধ থাকে না….(টেনিসন।)

(৫৭) ভালোবাসা এবং যত্ন দিয়ে মরুভূমিতেও ফুল ফোটানো যায়…. (ডেভিড রস।)

(৫৮) জীবন যেন একটা ফুল আর জীবনের ভালোবাসা হলো মধু স্বরূপ…(সেকেনা)

(৫৯) প্রেম হলো সিগারেটের মতো, জার আরাম্ভ হলো অগ্নি দিয়ে আর শেষ পরিণতি ছাইয়েতে… (বার্নার্ড শ।)

(৬০) কেউ যদি তোমার ভালবাসার মূল্য না বুঝে তবে নিজেকে নিঃস্ব ভেব না।জীবনটা এত তুচ্ছ না…(বসন্ত বাউরি।)

হেলাল হাফিজ এর উক্তি

(১)কথা ছিলো একটি পতাকা পেলে আমাদের সব দুঃখ জমা দেবো যৌথ-খামারে, সম্মিলিত বৈজ্ঞানিক চাষাবাদে সমান সুখের ভাগ সকলেই নিয়ে যাবো নিজের সংসারে

(২)ঘরের কষ্ট পরেরর কষ্ট পাখি এবং পাতার কষ্ট দাড়ির কষ্ট চোখের বুকের নখের কষ্ট, একটি মানুষ খুব নীরবে নষ্ট হবার কষ্ট আছে কষ্ট নেবে কষ্ট

(৩)যদি যেতে চাও, যাও আমি পথ হবো চরণের তলে না ছুঁয়ে তোমাকে ছোঁব ফেরাবো না, পোড়াবোই হিমেল অনলে

(৪)হয়তো তোমাকে হারিয়ে দিয়েছি নয় তো গিয়েছি হেরে থাক না ধ্রুপদী অস্পষ্টতা কে কাকে গেলাম ছেড়ে

(৫)তোমার জন্য সকাল, দুপুর তোমার জন্য সন্ধ্যা তোমার জন্য সকল গোলাপ এবং রজনীগন্ধা

(৬)ভালোবেসেই নাম দিয়েছি ‘তনা’ মন না দিলে ছোবল দিও তুলে বিষের ফণা

(৭)তুমি আমার নিঃসঙ্গতার সতীন হয়েছ !

(৮)নিউট্রন বোমা বোঝ মানুষ বোঝ না !

(৯)আছি। বড্ড জানান দিতে ইচ্ছে করে, – আছি, মনে ও মগজে গুন্‌ গুন্‌ করে প্রণয়ের মৌমাছি

(১০)বোকা উদ্ভিদ তবে কি মানুষের কাছে প্রেম চেয়েছিলো? চেয়েছিলো আরো কিছু বেশি

(১১)আকালের এই কালে সাধ হলে পথে ভালোবেসো, ধ্রুপদী পিপাসা নিয়ে আসো যদি লাল শাড়িটা তোমার পড়ে এসো

(১২)তারপর ফেরে, তবু ফেরে, কেউ তো ফেরেই, আর জীবনের পক্ষে দাঁড়ায়, ভালোবাসা যাকে খায় এইভাবে সবটুকু খায়

(১৩)কথা ছিলো একটি পতাকা পেলে ভজন গায়িকা সেই সন্ন্যাসিনী সবিতা মিস্ট্রেস ব্যর্থ চল্লিশে বসে বলবেন,–’পেয়েছি, পেয়েছি

(১৪)তাবিজ! এ কেমন তাবিজ করেছো সোনা, ব্যথাও কমে না, বিষও নামে না!

(১৫)আমাকে পাবে না খুঁজে, কেঁদে কেটে মামুলি ফাল্গুনে

(১৬)কবির জীবন খেয়ে জীবন ধারণ করে কবিতা এমন এক পিতৃঘাতী শব্দের শরীর, কবি তবু সযত্নে কবিতাকে লালন করেন, যেমন যত্নে রাখে তীর জেনে-শুনে সব জল ভয়াল নদীর

(১৭)কথা ছিলো একটি পতাকা পেলে আমি আর লিখবো না বেদনার অঙ্কুরিত কষ্টের কবিতা

(১৮)কোনদিন, আচমকা একদিন ভালোবাসা এসে যদি হুট করে বলে বসে,- ‘চলো যেদিকে দুচোখ যায় চলে যাই’, যাবে?

(১৯)হয় তো কেটেছে তার মায়া ও মমতাহীন সজল শৈশব অথবা গিয়েছে দিন এলোমেলো পরিচর্যাহীন এক রঙিন কৈশোর, নাকি সে আমার মত খুব ভালোবেসে পুড়েছে কপাল তার আকালের এই বাংলাদেশে

(২০)যুক্তি যখন আবেগের কাছে অকাতরে পর্যুদস্ত হতে থাকে, কবি কিংবা যে কোনো আধুনিক মানুষের কাছে সেইটা বোধ করি সবচেয়ে বেশি সংকোচ আর সঙ্কটের সময়

(২১)ব্যর্থ হয়ে থাকে যদি প্রণয়ের এতো আয়োজন, আগামী মিছিলে এসো স্লোগানে স্লোগানে হবে কথোপকথন

(২২)আজন্ম মানুষ আমাকে পোড়াতে পোড়াতে কবি করে তুলেছে মানুষের কাছে এওতো আমার এক ধরনের ঋণ। এমনই কপাল আমার অপরিশোধ্য এই ঋণ ক্রমাগত বেড়েই চলেছে

(২৩)জলের আগুনে পুড়ে হয়েছি কমল, কী দিয়ে মুছবে বলো আগুনের জল

(২৪)কথা ছিলো একটি পতাকা পেলে ভূমিহীন মনুমিয়া গাইবে তৃপ্তির গান জ্যৈষ্ঠে-বোশেখে, বাঁচবে যুদ্ধের শিশু সসন্মানে সাদা দুতে-ভাতে

(২৫)কষ্ট নেবে কষ্ট হরেক রকম কষ্ট আছে কষ্ট নেবে কষ্ট

(২৬)তোমার হাতে দিয়েছিলাম অথৈ সম্ভাবনা তুমি কি আর অসাধারণ? তোমার যে যন্ত্রনা খুব মামুলী, বেশ করেছো চতুর সুদর্শনা আমার সাথে চুকিয়ে ফেলে চিকন বিড়ম্বনা

(২৭)আর কে দেবে আমি ছাড়া আসল শোভন কষ্ট, কার পুড়েছে জন্ম থেকে কপাল এমন আমার মত ক’জনের আর সব হয়েছে নষ্ট, আর কে দেবে আমার মতো হৃষ্টপুষ্ট কষ্ট

(২৮)তুমি কি জুলেখা, শিরী, সাবিত্রী, নাকি রজকিনী? চিনি, খুব জানি তুমি যার তার, যে কেউ তোমার, তোমাকে দিলাম না – ভালোবাসার অপূর্ব অধিকার

(২৯)কোনদিন, আচমকা একদিন ভালোবাসা এসে যদি হুট করে বলে বসে, “চলো”, যেদিকে দু’চোখ যায় চলে যাই, যাবে?

(৩০)আমাকে উস্টা মেরে দিব্যি যাচ্ছো চলে, দেখি দেখি বাঁ পায়ের চারু নখে চোট লাগেনি তো; ইস্‌! করছো কি? বসো না লক্ষ্মীটি, ক্ষমার রুমালে মুছে সজীব ক্ষতেই এন্টিসেপটিক দুটো চুমু দিয়ে দেই

(৩১)যুক্তি যখন আবেগের কাছে অকাতরে পর্যুদস্ত হতে থাকে, কবি কিংবা যে কোনো আধুনিক মানুষের কাছে সেইটা বোধ করি সবচেয়ে বেশি সংকোচ আর সঙ্কটের সময়

(৩২)কোনো প্রাপ্তিই পূর্ণ প্রাপ্তি নয় কোনো প্রাপ্তির দেয় না পূর্ণ তৃপ্তি সব প্রাপ্তি ও তৃপ্তি লালন করে গোপনে গহীনে তৃষ্ণা তৃষ্ণা তৃষ্ণা

(৩৩)লাল কষ্ট নীল কষ্ট কাঁচা হলুদ রঙের কষ্ট পাথর চাপা সবুজ ঘাসের সাদা কষ্ট, আলোর মাঝে কালোর কষ্ট ‘মালটি-কালার’ কষ্ট আছে কষ্ট নেবে কষ্ট

(৩৪)হয় তো কেটেছে তার মায়া ও মমতাহীন সজল শৈশব অথবা গিয়েছে দিন এলোমেলো পরিচর্যাহীন এক রঙিন কৈশোর, নাকি সে আমার মত খুব ভালোবেসে পুড়েছে কপাল তার আকালের এই বাংলাদেশে। বোকা উদ্ভিদ তবে কি মানুষের কাছে প্রেম চেয়েছিলো? চেয়েছিলো আরো কিছু বেশি।

(৩৫)ধ্রুপদী আঙিনা ব্যাপী কন্টকিত হাহাকার আর অবহেলা, যেন সে উদ্ভিদ নয় তাকালেই মনে হয় বিরান কারবালা।

(৩৬)কথা ছিলো একটি পতাকা পেলে পাতা কুড়োনির মেয়ে শীতের সকালে ওম নেবে জাতীয় সংগীত শুনে পাতার মর্মরে।

শেখ মুজিবুর রহমানের উক্তি

(১)কোনো জেল জুলুমই কোনোদিন আমাকে টলাতে পারেনি, কিন্তু মানুষের ভালবাসা আমাকে বিব্রত করে তুলেছে

(২)ভিক্ষুক জাতির ইজ্জত থাকে না। বিদেশ থেকে ভিক্ষা করে এনে দেশকে গড়া যাবে না। দেশের মধ্যেই পয়সা করতে হবে।

(৩)এই স্বাধীনতা তখনি আমার কাছে প্রকৃত স্বাধীনতা হয়ে উঠবে, যেদিন বাংলার কৃষক-মজুর ও দুঃখী মানুষের সকল দুঃখের অবসান হবে

(৪)আমার দেশবাসীর কল্যাণের কাছে আমার মতো নগণ্য ব্যক্তির জীবনের মূল্যই -বা কতটুকু? মজলুম দেশবাসীর বাঁচার জন্য সংগ্রাম করার মতো মহান কাজ আর কিছু আছে বলিয়া মনে করি না

(৫) আমাদের চাষীরা হল সবচেয়ে দু:খী ও নির্যাতিত এবং তাদের অবস্হার উন্নতির জন্যে আমাদের উদ্যোগের বিরাট অংশ অবশ্যই তাদের পেছনে নিয়োজিত করতে হবে

(৬)জনগণকে ছাড়া, জনগণকে সংঘবদ্ধ না করে, জনগণকে আন্দোলনমুখী না করে এবং পরিস্কার আদর্শ সামনে না রেখে কোনোরকম গণ আন্দোলন হতে পারেনা।

(৭)আওয়ামিলীগ ক্ষমতা আটকে রাখার জন্য রাজনীতি করে না। ক্ষমতায় যাওয়ার ইচ্ছা থাকলে আইন করে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত থাকতে পারত।

(৮)আমি আমার জন্মদিনের উৎসব পালন করি না। এই দু:খিনী বাংলায় আমার জন্মদিনই-বা কি আর মৃত্যুদিনই-বা কি?

(৯)যার মনের মধ্যে আছে সাম্প্রদায়িকতা সে হলো বন্য জীবের সমতূল্য

(১০)সরকারী কর্মচারীদের জনগণের সাথে মিশে যেতে হবে। তাঁরা জনগণের খাদেম, সেবক, ভাই। তাঁরা জনগণের বাপ, জনগণের ভাই, জনগণের সন্তান। তাঁদের এই মনোভাব নিয়ে কাজ করতে হবে।

(১১)আমলা নয় মানুষ সৃষ্টি করুন

(১২)আমাদেরকে সোনার দেশের সোনার মানুষ হতে হবে

(১৩)এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম

(১৪)আমার দেশ স্বাধীন দেশ। ভারত হোক, আমেরিকা হোক, রাশিয়া হোক, গ্রেট ব্রিটেন হোক কারো এমন শক্তি নাই যে, আমি যতক্ষণ বেঁচে আছি ততক্ষণ আমার দেশের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করতে পারে।

(১৫)দেশের সাধারণ মানুষ, যারা আজও দু:খী, যারা আজও নিরন্তর সংগ্রাম করে বেঁচে আছে, তাদের হাসি-কান্না সুখ-দু:খকে শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতির উপজীব্য করার জন্য শিল্পী, সাহিত্যিক ও সংস্কৃতিসেবীদের প্রতি আহবান জানাচ্ছি।

(১৬)অযোগ্য নেতৃত্ব, নীতিহীন নেতা ও কাপুরুষ রাজনীতিবিদদের সাথে কোনোদিন একসাথে হয়ে দেশের কাজে নামতে নেই। তাতে দেশসেবার চেয়ে দেশের ও জনগণের সর্বনাশই বেশি হয়।

(১৭)এখন যদি কেউ বাংলাদেশের স্বাধীনতা হরণ করতে চায়, তাহলে সে স্বাধীনতা রক্ষা করার জন্যে মুজিব সর্ব প্রথম তার প্রাণ দেবে।

(১৮)বাংলার মাটি দু্র্জয় ঘাঁটি জেনে নিক দুর্বৃত্তেরা

(১৯)আর সাম্প্রদায়িকতা যেন মাথাচারা দিয়ে উঠতে না পারে। ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র বাংলাদেশ। মুসলমান তার ধর্মকর্ম করবে।হিন্দু তার ধর্মকর্ম করবে। বৌদ্ধ তার ধর্মকর্ম করবে। কেউ কাউকে বাধা দিতে পারবে না। কিন্তু ইসলামের নামে আর বাংলাদেশের মানুষকে লুট করে খেতে দেওয়া হবে না।

(২০)সাংস্কৃতিক স্বাধীনতা ছাড়া রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক স্বাধীনতা অর্থহীন। তাই মাটি ও মানুষকে কেন্দ্র করে গণমানুষের সুখ শান্তি ও স্বপ্ন এবং আশা-আকাঙ্খাকে অবলম্বন করে গড়ে উঠবে বাংলার নিজস্ব সাহিত্য-সংস্কৃতি।

(২১)বাংলার উর্বর মাটিতে যেমন সোনা ফলে, ঠিক তেমনি পরগাছাও জন্মায়! একইভাবে বাংলাদেশে কতকগুলো রাজনৈতিক পরগাছা রয়েছে, যারা বাংলার মানুষের বর্তমান দু:খ দূর্দশার জন্য দায়ী।

(২২)ধর্মপ্রাণ বাঙ্গালী মুসলমানরা তাদের ধর্মকে ভালোবাসে; কিন্তু ধর্মের নামে ধোঁকা দিয়ে রাজনৈতিক কার্যসিদ্ধি করতে তারা দিবে না এ ধারণা অনেকেরই হয়েছিল। জনসাধারণ চায় শোষণহীন সমাজ এবং অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নতি।

(২৩)আমরা গণতন্ত্র চাই, কিন্তু উসৃঙ্খলা চাই না, কারও বিরুদ্ধে ঘৃণা সৃষ্টি করতেও চাই না।অথচ কোনো কাগজে লেখা হয়েছে মুসলমানকে রক্ষা করার জন্য সংঘবদ্ধ হও। যে সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে আমার দেশের মানুষ রক্ত দিয়েছে, এখানে বসে কেউ যদি তার বীজ বপন করতে চায় তাহলে তা কি আপনারা সহ্য করবেন?

(২৪)আন্দোলন গাছের ফল নয়। আন্দোলন মুখ দিয়ে বললেই করা যায় না।আন্দোলনের জন্য জনমত সৃষ্টি করতে হয়। আন্দোলনের জন্য আদর্শ থাকতে হয়। আন্দোলনের জন্য নি:স্বার্থ কর্মী হতে হয়। ত্যাগী মানুষ থাকা দরকার। আর সর্বোপরি জনগণের সংঘবদ্ধ ও ঐক্যবদ্ধ সমর্থন থাকা দরকার।

(২৫)এটাই হয়ত আমার শেষ বার্তা, আজ থেকে বাংলাদেশ স্বাধীন। আমি বাংলাদেশের মানুষকে আহ্বান জানাই, আপনারা যেখানেই থাকুন, আপনাদের সর্বস্ব দিয়ে দখলদার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে শেষ পর্যন্ত প্রতিরোধ চালিয়ে যান। বাংলাদেশের মাটি থেকে সর্বশেষ পাকিস্তানি সৈন্যটিকে উত্খাত করা এবং চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের আগ পর্যন্ত আপনাদের যুদ্ধ অব্যাহত থাকুক।

২৬)ব্ল্যাকমার্কেটিং কারা করে? যাদের পেটের মধ্যে দুই কলম বিদ্যা রয়েছে তারাই ব্ল্যাকমার্কেটিং করে। স্মাগলিং কারা করে? যারা বেশি লেখাপড়া করেছে তারাই করে। হাইজাকিং কারা করে? যারা বেশি লেখাপড়া শিখছে তারাই করে। ইন্টারন্যাশনাল স্মাগলিং তারাই করে। বিদেশে টাকা রাখে তারাই। আমরা যারা শিক্ষিত, আমরা যারা বুদ্বিমান, ওষুধের মধ্যে ভেজাল দিয়ে বিষাক্ত করে মানুষকে খাওয়াই তারাই। নিশ্চয়ই গ্রামের লোক এসব পারে না, নিশ্চয়ই আমার কৃষক ভাইরা পারে না। নিশ্চয়ই আমার শ্রমিক ভাইরা পারে না।

(২৭)মানুষকে ভালোবাসলে মানুষও ভালোবাসে। যদি সামান্য ত্যাগ স্বীকার করেন, তবে জনসাধারণ আপনার জন্য জীবন দিতেও পারে

(২৮)এ প্রধানমন্ত্রীত্ব আমার কাছে কাঁটা বলে মনে হয়। আমি যদি বাংলার মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে না পারি, আমি যদি দেখি বাংলার মানুষ দু:খী, আর যদি দেখি বাংলার মানুষ পেট ভরে খায় নাই, তাহলে আমি শান্তিতে মরতে পারবো না।

(২৯)পবিত্র ধর্মকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা চলবে না। যদি কেউ বলে যে, ধর্মীয় অধিকার খর্ব করা হয়েছে, আমি বলব ধর্মীয় অধিকার খর্ব করা হয়নি। সাড়ে সাত কোটি মানুষের ধর্মীয় অধিকার রক্ষা করার ব্যবস্হা করেছি। কেউ যদি বলে গণতান্ত্রিক মৌলিক অধিকার নাই, আমি বলব সাড়ে সাত কোটি মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে যদি গুটিকয়েক লোকের অধিকার হরণ করতে হয়, তা করতেই হবে।

(৩০)আওয়ামিলীগ ও তার কর্মীরা যে কোনো ধরণের সাম্প্রদায়িকতাকে ঘৃণা করে। আওয়ামিলীগের মধ্যে অনেক নেতা ও কর্মী আছে যারা সমাজতন্ত্রে বিশ্বাস করে; এবং তারা জানে সমাজতন্ত্রের পথই একমাত্র জনগণের মুক্তির পথ। ধনতন্ত্রবাদের মাধ্যমে জনগণকে শোষণ করা চলে। যারা সমাজতন্ত্রে বিশ্বাস করে, তারা কোনদিন কোনো রকমের সাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাস করতে পারে না। তাদের কাছে মুসলমান, হিন্দু, বাঙ্গালী, অবাঙ্গালী সকলেই সমান।

বিখ্যাত ব্যাক্তিদের উক্তি

  • মানুষ দু’টা সময়ে খেলতে পছন্দ করে।
    শৈশবে এবং বৃদ্ধ বয়সে। শৈশবে খেলার সঙ্গী জুটে যায়, বৃদ্ধ বয়সে কাউকে পাওয়া যায় না। তখন খেলতে হয় নিজের সঙ্গে।

শুরু হল একটি অন্ধকার দীর্ঘ রাত। মানুষের সঙ্গে পশুদের একটা বড় পার্থক্য আছে। পশুরা কখনো মানুষদের মত হৃদয়হীন হতে পারে না। পঁচিশে মার্চের রাতে হৃদয়হীন একদল পাকিস্তানী মিলিটারি এ শহর দখল করে নিল। তারা গুড়িয়ে দিল রাজারবাগ পুলিশ লাইন। জগন্নাথ হল ও ইকবাল হলের প্রতিটি ছাত্রকে গুলি করে মারল। বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ঢুকে হত্যা করল শিক্ষকদের। বস্তিতে শুয়ে থাকা অসহায় মানুষদের গুলি করে মেরে ফেলল বিনা দ্বিধায়। বাঙালীদের বেঁচে থাকা না থাকা কোন ব্যাপার নয়। এরা কুকুরের মত প্রাণী, এদের মৃত্যুতে কিছুই যায় আসে না। এদের সংখ্যা যত কমিয়ে আনা যায় ততই মঙ্গল। এদের মেরে ফেল। এদের শেষ করে দাও। এক রাতে এ শহর মৃতের শহর হয়ে গেল। অসংখ্য বাবা তাঁদের ছেলেমেয়েদের কাছে ফিরে গেল না। অসংখ্য শিশু জানল না বড় হয়ে ওঠা কাকে বলে। বেঁচে থাকার মানে কি? [পঁচিশে মার্চ রাতের বর্ণনা]

  •  অধিকাংশ মানুষই আজকাল গুছিয়ে কথা বলতে পারে না। চিন্তা এলোমেলো থাকে বলে কথাবার্তাও থাকে এলোমেলো।

শিক্ষার শেকড়ের স্বাদ তেঁতো হলেও এর ফল মিষ্টি —এরিস্টটল।

 শিয়ালের মতো একশো বছর জীবন ধারণ করার চাইতে সিংহের মতো একদিন বাঁচাও ভাল । —টিপু সুলতান

  • সৎ হতে হবে অথবা সৎ লোকের অনুসন্ধান করতে হবে। —ডেমিক্রিটাস

সত্যকে ভালবাস, কিন্তু ভুলকে ক্ষমা কর। —ভলতেয়ার

  • সব লোকের ঘাড়েই মাথা আছে, কিন্তু মস্তিষ্ক আছে কিনা সেটাই প্রশ্ন। —জুভেনাল

সবচে’ জ্ঞানী ব্যক্তিটিও উত্তর জানেনা এমন হাজার প্রশ্ন করতে পারে শিশুরা । —জে এবট

  • সময় চলে যায়না, আমরাই চলে যাই । —অস্টিন ডবসন

সময় দ্রুত চলে যায়, এর সদ্ব্যবহার যারা করতে পারে, তারাই সফল ও সার্থক বলে পরিচিত হয় — বেকেন বাওয়ার

সময়ের সমুদ্রে আছি,কিন্তু একমুহূর্ত সময় নেই —রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

  • সর্বোৎকৃষ্ট আয়না হলো একজন পুরনো বন্ধু । জর্জ হার্বাট

 হ্যাঁ’ এবং ‘না’ কথা দুটো সবচে’ পুরনো এবং সবচে’ ছোট । কিন্তু এ কথা দু’টো বলতেই সবচে’ বেশি ভাবতে হয়। — পীথাগোরাস

  •  “ফুল ফুটুক নাই বা ফুটুক আজ বসন্ত” – সুভাষ মুখোপাধ্যায়।

“শ্রম বিনা শ্রী হয় না” – উপনিষদ।

 “স্বর্গে দাসত্ব করার চেয়ে নরকে রাজত্ব করা অনেক ভাল” – জন মিল্টন।

  • “কোন বিষয়ে প্রস্তাব করা সহজ, কিন্তু নির্বাহ করে ওঠা কঠিন” – ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।

“বিপদে মোরে রক্ষা করো এ নহে মোর প্রার্থনা” – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

  • “স্বরাজ আমার জন্মগত অধিকার” – বাল গঙ্গাধর তিলক।

 “যেখানে দেখিবে ছাই, উড়াইয়া দেখ তাই, মিলিলেও মিলিতে পারে অমূল্য রতন” – ভারতচন্দ্র রায়।

  •  “কুসুম আপনার জন্য ফোটে না, পরের জন্য তোমার হৃদয় কুসুমটিকে প্রস্ফুটিত করিও” – বঙ্কিমচন্দ্র।

“ভুলিও না তোমার জন্ম মায়ের জন্য বলি প্রদত্ত” – স্বামী বিবেকানন্দ।

“সত্যের জন্য সব কিছুকে ত্যাগ করা চলে, কিন্তু কোন কিছুর জন্য সত্যকে বর্জন করা চলে না” – স্বামী বিবেকানন্দ।

 “সবার উপর মানুষ সত্য তাহার উপর নাই” – চন্ডীদাস।

  •  “যেখানে বিজ্ঞান শেষ সেখানে দর্শন শুরু, যেখানে দর্শন শেষ সেখানে ধর্ম শুরু” – আইনস্টাইন।

“মানুষের জীবনে শৈশব হল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ” – রুশো।

  • “সংগ্রামই জীবন, সংগ্রাম হীনতা মৃত্যু/গীতা পাঠ অপেক্ষা ফুটবল খেলা ভাল/জগতে সর্বদাই দাতার আশ্রয় গ্রহন করো” – স্বামী বিবেকানন্দ।

 “শিক্ষা দানের কাজ বাগানের মালীর মত” – রুশো।

 “যা পাওয়া যায় না তার প্রতি আমাদের আগ্রহের সীমা থাকে না” – হুমায়ূন আহমেদ।

  • “কান্নায় অনন্ত সুখ আছে তাইতো কাঁদতে এত ভালবাসি” – স্বামী বিব্বেকানন্দ।

“অসৎ ব্যক্তি সৎ ব্যক্তির কাজের মধ্যে কোন মহৎ উদ্দেশ্য খুঁজে পায় না” – জন বেকার।

“সবার সাথে তাল মিলিয়ে যে কথা বলে সে ব্যাক্তিত্বহীন” – মার্ক টোয়াইন।

 “প্রেমের আনন্দ থাকে স্বল্পক্ষন কিন্তু বেদনা থাকে সারাটি জীবন” – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

  •  “ভাগ্য বলে কিছুই নেই প্রত্যেকের চেষ্টা ও যত্নের উপর তা গড়ে ওঠে” – স্কট।

“তুমি যদি কোন লোককে জানতে চাও, তাহলে তাকে প্রথমে ভালবাসতে শেখো” – লেলিন।

 “বিশ্বাস জীবনকে গতিময়তা দান করে, আর অবিশ্বাস জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে” – মিল্টন।

 “আমরা ভাবি দেশে যত ছেলে পাশ হচ্ছে তত শিক্ষার বিস্তার হচ্ছে। পাশ করা আর শিক্ষিত হওয়া এক বস্তু নয়, এ সত্য স্বীকার করতে আমরা কুন্ঠিত হই” – প্রমথ চৌধুরী।

  •  “যে যে বিষয়ে প্রশিক্ষণ নিয়েছে সে সেই বিষয়ে শিক্ষিত, কাজে সবাই শিক্ষিত” – নেপোলিয়ান।

“জ্ঞানের ন্যায় পবিত্র বস্তু জগতে আর কিছুই নেই” – পবিত্র গীতা।

 “সব দুঃখের মূল এই দুনিয়ার প্রতি অত্যাধিক আকর্ষণ” – হযরত আলী (রাঃ)।

“যে সহজ সরল জীবনযাপন করে সুখ তার জন্য অত্যন্ত সহজলভ্য” – আলেকজান্ডার।

  •  “যদি তুমি কখনো অপমানিত বোধ কর তবে অপরকে সেটা বুঝতে দেবে না” – জন বেকার।

“এই পৃথিবী কখনো খারাপ মানুষের কর্মের জন্য ধংস হবে না। যারা খারাপ মানুষের খারাপ কর্ম দেখেও কিছু করেনা, তাদের জন্যই পৃথিবী ধংস হবে” – আইনস্টাইন।

 “নিজের বিপদের কথা শত্রুকে বলো না, সে মুখে দুঃখ প্রকাশ করবে আর অন্তরে উল্লাস বোধ করবে”

“একটি ফুল দিয়ে কখনো মালা গাঁথা যায় না, তেমনি একটি ভাল কাজ করে জীবকে সুন্দর করা যায় না”

  •  যাকে শ্রদ্ধা করা যায় না, তাকে হৃদয় দিয়ে ভালবাসাও যায় না – সুইফ্ট

আইন মাকড়শার জালের মত, ক্ষুদ্র কেউ পরলে আটকে যায় বড়োরা ছিড়ে বেড়িয়ে আসে – সলোন

  • ভীরুরা যখন নিরাপদ অবস্থানে থাকে তখনই অন্যকে শাসাতে সাহস পায় – গ্যাটে

প্রয়োজন আইনের তোয়াক্কা করে না – বেন্জ্ঞামিন ফ্রাঙ্কলিন

অর্থ মানুষকে পিশাচ করে তুলে, আবার অর্থই মানুষকে মহৎও করে তুলে – ক্যাম্বেল

  • জীবন হচ্ছে মৃত্যুর ঘনিষ্ঠ সংগী – এস টি কোলরিজ

দুঃখ, ঘৃণা এবং ভয়কে হাসিমুখে বরণ করতে পারলে সংসারে শান্তি আসে – হাফিজ

  •  বিনাশ্রমে অর্জিত সম্পদ দুঃখজনক পরিণতি ডেকে আনে – মহিউদ্দিন

কোন কাজে যার নিজস্ব পরিকল্পনা নেই, তার সাফল্য অনিশ্চিত – অলিবার গোল্ডস্মিথ।

আইনস্টাইনের বিখ্যাত উক্তি

দেখুন তারের টেলিগ্রাফ হলো একটা অনেক অনেক লম্বা বিড়ালের মতো। আপনি নিউ ইয়র্কে ওর লেজ ধরে টান দেবেন আর ও লস এঞ্জেলেসে মিউ মিউ করে উঠবে। আপনি কি এটা বুঝতে পেরেছেন? আর বেতারও ঠিক এইভাবেই কাজ করে। আপনি এইখানে বসে সিগনাল পাঠাচ্ছেন আর ওরা ওইখানে বসে সেটা গ্রহণ করছে। শুধু একমাত্র পার্থক্যটা হলো, এখানে কোন বিড়ালই নেই।

 পুরুষ নারীদের বিয়ে করে এই আশায় যে তারা কখনো বদলাবে না। নারী পুরুষকে এই আশায় বিয়ে করে যে তারা বদলাবে। স্বভাবতই তারা দুজনেই হতাশ হয়।

যখন কোন কোন লোক সুন্দরী মেয়ের সঙ্গে এক ঘণ্টা কাটায় তখন মনে হয় যেন এক মিনিট গেলো। কিন্তু সেই লোকটিকেই এক মিনিটের জন্যে গরম চুল্লির উপর বসিয়ে দিলে তার কাছে মনে হবে একঘণ্টারও বেশি সময় গেলো। এটিই আপেক্ষিক তত্ত্ব।

তত্ত্বগতভাবে, তত্ত্বীয় আর ব্যবহারিক দিকটা একই। কিন্তু ব্যবহারিক ক্ষেত্রে তারা এক নয়।

 একটি টেবিল, চেয়ার, ফল ভরা পাত্র আর একটা বেহালা সুখী হওয়ার জন্য একটা মানুষের আর কী দরকার?

 কল্পনা জ্ঞানের চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

ঈশ্বরের আগে আমরা সবাই সমান বুদ্ধিমান এবং সমান নির্বোধ ছিলাম।

মানুষের প্রেমে পড়ার জন্যে মধ্যাকর্ষণ দায়ী নয়।

ঘটনার সঙ্গে যদি তত্ত্ব না-মেলে তাহলে ঘটনাকে পাল্টাও।

 পৃথিবীতে সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো আয়কর বোঝা।

 একমাত্র মূল্যবান জিনিস হলো প্রজ্ঞা।

 আমি কখনোই ভবিষ্যত নিয়ে ভাবিনি, এটা যথেষ্ট দ্রুত চলে আসে।

অনেক সময় কেউ কেউ কিছু না পেয়েও সব কিছু দেয়।

 যে কখনো ভূল করেনি সে কখনো নতুন কোন কিছুর চেষ্টাও করেনি।

 সব কিছু যতোটা সম্ভব সরল করা উচিত, তবে একদম সরল নয়।

বিজ্ঞান খুব সুন্দর জিনিস যদি এর থেকে কাউকে উপার্জন করতে না হয়।

তোমার অংকের সমস্যা নিয়ে দুঃশ্চিন্তা করো না, আমি নিশ্চয়তা দিচ্ছি আমার সমস্যা আরও অনেক বেশি।

 চিন্তাশক্তি করার ক্ষমতা থাকা মেধার শক্তি থেকেও বেশী প্রয়োজনীয়। মেধা সাধারণত সামান্য বিষয়েই সীমাবদ্ধ থাকে।

 আমি চিন্তা করেছি মাসের পর মাস, বছরের পর বছর। আমার চিন্তাগুলো ৯৯ বারই ভুল হয়েছে তবে শততম বারে আমি সফল হয়েছি।

 সমস্ত কঠিন আর সমস্যার মাঝেই লুকিয়ে থাকে সেরা সুযোগটি।

 মহৎ ব্যক্তিরা সর্বদাই সংকীর্ণ-ব্যক্তিত্বের অধিকারী মানুষদের নিকট থেকে ভয়ানক বাধার সম্মুখীন হয়।

একুশে ফেব্রুয়ারি নিয়ে উক্তি

 আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি বুলিতে পারি।- আবদুল গাফফার চৌধুরী।

  • একুশে মানে মাথা বত না করা।একুশের দাবী,ন্যায়ের দাবী,সত্যের দাবী।- আবুল ফজল।

আবার ফুটেছে দ্যাখ কৃষ্ণচুড়া থরে থরে শহরের পথে কেবল নিবিড় হয়ে কখনো মিছিলে কখনও বা একা হেটে যেতে মনে হয়,ফুল নয় ওরা শহীদের ঝলকানিতে রক্তের বুদবুদ, স্মৃতি – গন্ধে ভরপুর একুশের কৃষ্ণচূড়া আমাদের চেতনারই রঙ।- শামসুর রহমান।

  • ঘুমাও ঘুমাও ভাইরা মোদের ঘুমাও মাটির ঘরে, তোমাদের কথা লিখিয়াছি মোরা। রক্তে আখর গড়ে।- জসীমউদ্দিন

হে বায়ান্নর পদাতিক, তোমাদের কথাকে কেউ হত্যা করতে পারবে না, তোমাদের দেহ থেকে নিপুন জল্লাদ একটি লোমও ফেলতে পারবে না।- আসাদ চৌধুরী।

  • ২১ শে ফেব্রুয়ারী কোনো বিশেষ দিন, ক্ষণ, বা তিথি নয়, একটি জাতির একটা জীবন্ত ইতিহাস। এ ইতিহাস অগ্নিগর্ভ যেন সজীব লাভা স্রাবক আগ্নেয়গিরি, কখনও অনৃতর্দাহে গর্জন করছে,আর কখনও চারিদিকে অগ্নি ছড়াচ্ছে। সত্যি এ ইতিহাস মৃত নয় একেবারে জীবন্ত। – ডক্টর মুহাম্মদ এনামুল হক।

মেয়েদের নিয়ে উক্তি

  •  আমি অস্বীকার করছি না যে, মেয়েরা বোকা,মহান খোদা তাদের তৈরী করেছেন পুরুষদের জুরী হিসাবে।- জর্জ ইলিয়ট

কিছু মেয়ের কারণে, যেমন আপনার জীবন সুন্দর হচ্ছে। আবার এই মেয়ের কারনেই, কেউ হচ্ছে মানসিক রোগী।- সাজু

  • সেই পুরুষের প্রতি মেয়েদের আকর্ষণ দুর্বার,যার প্রতি অন্য মেয়ে অনুকূল। – বালজাক

মেয়ের সম্মান মেয়েদের কাছেই সবচেয়ে কম।- রবীন্দ্রনাথ

  • মেয়েরা পুরুষ কে সাধারণ ভাবে অবিশ্বাস করে,কিন্তু নির্দিষ্টভাবে খুব কমই বিশ্বাস করে। -কমারসন।

তোমরা পুরুষ মানুষ দুঃখের সঙ্গে লডাই করে,মেয়েরা যুগে যুগে দুঃখ কেবল সহ্যই করে।চোখের জল আর ধৈর্য ছাড়া আর তো কিছু সম্বল নেই তাদের। -রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

  • কম বয়েসী মেয়ে মানুষ হল রসগোল্লার মতো,যেখানে রাখবে সেখানেই পিঁপড়ে ধরবে।- শংকর।

মেয়েদের মধ্যে অনেক সুন্দরী মেয়েলোক পাওয়া যায়,কিন্তু নির্ভুল মেয়েমানুষ পাওয়া কঠিন।- ভিক্টর হুগো।

  • কিছু মেয়ের মন প্রকৃতির মত রং বদলায়। – সাজু।

মেয়ে চরিত্রই তাই, যখন আমরা ভালোবাসতে যাই তখন তারা ভালোবাসে না, যখন তারা প্রেম জানাতে আসে তখন আমরা তাদের ভালোবাসি না।- সেরভেনটিস।

  • দুটি বস্তু মেয়েদের দ্বিতীয় জন্ম দেয়,একটি সুন্দর পোশাক, আর অন্যটি হল প্রেমপত্র। – বালজাক

মেয়ে মানুষ ভক্তিতে কেঁদে গড়াগড়ি দেয়,তবুও কোন মতে তাকে বিশ্বাস করবে না।- শ্রীরামকৃষ্ণ।

  • মেয়েরা সাধারণত এত খারাপ যে, ভালো এবং মন্দ মেয়েদের মধ্যে কোনো পার্থক্যই করা যায় না।- টলস্টয়।

মেয়েরা হচ্ছে বিধাতার আজব সৃষ্টি। – অবধৃত।

  • একজন অল্প বয়সী মেয়ে, স্ত্রী হিসাবে অথবা মা হিসাবে কোনোটাতেই ভালো নয়।- নজ এডামস

মেয়েরা খুব সহজে কাঁদতে পারে,কোনটা আসল কোনটা নাটকীয় বোজা বড়ই কঠিন।- সাজু

লাইফ চেইঞ্জ উক্তি

➢ কেও কারও মত হতে পারে না। সবাই হয় তার নিজের মত। তুমি হাজার চেষ্টা করেও তোমার চাচার বা বাবার মত হতে পারবে না। সব মানুষই আলাদা।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ হাসিতে খুব সহজেই মানুষকে চেনা যায় ।সব মানুষ একই ভঙ্গিতে কাঁদে কিন্তু হাসার সময় একেক জন একেক রকম করে হাসে।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ তুমি সুন্দর তাই চেয়ে থাকি প্রিয়, সে কি মোর অপরাধ? চাঁদেরে হেরিয়া কাঁদে চকোরিণী বলে না তো কিছু চাঁদ – কাজী নজরুল ইসলাম
➢ সে দেশে যবে বাদল ঝরে কাঁদে না কি প্রাণ একেলা ঘরে, বিরহ ব্যথা নাহি কি সেথা বাজে না বাঁশি নদীর তীরে।- কাজী নজরুল ইসলাম
➢ চাঁদ হেরিছে চাঁদমুখ তার সরসীর আরশিতে ছোটে তরঙ্গ বাসনা ভঙ্গ সে অঙ্গ পরশিতে।- কাজী নজরুল ইসলাম
➢ কোনকালে একা হয়নিকো জয়ী, পূরুষের তরবারী; প্রেরনা দিয়েছে, শক্তি দিয়াছে, বিজয়ালক্ষী নারী – কাজী নজরুল ইসলাম
➢ বল বীর-বল উন্নত মম শির! শির নেহারী’ আমারি নতশির, ওই শিখর হিমাদ্রীর – কাজী নজরুল ইসলাম
➢ স্বপ্ন সত্যি করার আগে স্বপ্ন দেখতে হবে।- এ পি জে আবদুল কালাম
➢ বৃষ্টির সময় প্রত্যেকটি পাখিই কোথাও না কোথাও আশ্রয় পায়। কিন্তু ঈগল মেঘের উপর দিয়ে উড়ে বৃষ্টিকে এড়িয়ে যায়।- এ পি জে আবদুল কালাম
➢ ওটা স্বপ্ন নয় যেটা তুমি ঘুমিয়ে দেখ, স্বপ্ন তা-ই যা তোমাকে ঘুমোতে দেয় না।- এ পি জে আবদুল কালাম
কিছু হলেই আমরা বলি, এই ১১ জন ১৬ কোটি মানুষের প্রতিনিধি। আন্দাজে! তিন কোটি লোকও হয়ত খেলা দেখেন না। দেখলেও তাদের জীবন-মরণ খেলায় না। মানুষের প্রতিনিধিত্ব করেন রাজনীতিবিদেরা, তাদের স্বপ্ন ভবিষ্যত অন্য জায়গায়। এই ১১ জন মানুষের ওপর দেশের মানুষের ক্ষুধা, বেঁচে থাকা নির্ভর করে না। দেশের মানুষকে তাকিয়ে থকতে হবে একজন বিজ্ঞানী, একজন শিক্ষাবিদের দিকে–মাশরাফি বিন মর্তুজা
➢ সরাসরি চোখের দিকে তাকিয়ে কেউ মিথ্যা বলতে পারে না। মিথ্যা বলতে হয় অন্যদিকে তাকিয়ে !- হুমায়ুন আহমেদ
➢ ভালবাসার কোন অর্থ বা পরিমাণ নেই – কাজী নজরুল ইসলাম
➢ মসজিদেরই পাশে আমার কবর দিও ভাই , যেন গোরে থেকেও মোয়াজ্জিনের আজান শুনতে পাই।- কাজী নজরুল ইসলাম
➢ অধিকাংশ মানুষ কল্পনায় সুন্দর, অথবা সুন্দর দুর থেকে। কাছে এলেই আকর্ষণ কমে যায়। মানুষই একই। কারো সম্পর্কে যত কম জানা যায়, সে তত ভাল মানুষ। – হুমায়ুন আহমেদ
➢ যখন মানুষের খুব প্রিয় কেউ তাকে অপছন্দ, অবহেলা কিংবা ঘৃণা করে তখন প্রথম প্রথম মানুষ খুব কষ্ট পায় এবং চায় যে সব ঠিক হয়ে যাক । কিছুদিন পর সে সেই প্রিয় ব্যক্তিকে ছাড়া থাকতে শিখে যায়। আর অনেকদিন পরে সে আগের চেয়েও অনেকবেশী খুশি থাকে যখন সে বুঝতে পারে যে কারো ভালবাসায় জীবনে অনেক কিছুই আসে যায় কিন্তু কারো অবহেলায় সত্যিই কিছু আসে যায় না।- হুমায়ুন আহমেদ তোমারে যে চাহিয়াছে ভুলে একদিন, সে জানে তোমারে ভোলা কি কঠিন!- কাজী নজরুল ইসলাম
➢ পৃথিবীতে অনেক ধরনের অত্যাচার আছে। ভালবাসার অত্যাচার হচ্ছে সবচেয়ে ভয়ানক অত্যাচার। এ অত্যাচারের বিরুদ্ধে কখনো কিছু বলা যায় না, শুধু সহ্য করে নিতে হয়। – হুমায়ুন আহমেদ ➢ তরুণী মেয়েদের হঠাৎ আসা আবেগ হঠাৎ চলে যায়। আবেগকে বাতাস না দিলেই হলো।আবেগ বায়বীয় ব্যাপার, বাতাস পেলেই তা বাড়ে। অন্য কিছুতে বাড়ে না | – হুমায়ুন আহমেদ
➢ বয়সকালেই মানুষ ছোট খাট ভুল করতে থাকে। ছোটখাটো ভুল করা যখন অভ্যাস হয়ে যায় তখন করে বড় ভুল !- হুমায়ুন আহমেদ ➢ মানুষ ট্রেইনের মত এক লাইনে চলে। তবে বিশেষ ঘটনার পর নতুন লাইন পাওয়া যায়।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ প্রতিটি দুঃসংবাদের সঙ্গে একটি করে সুসংবাদ থাকে।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ সমুদ্রের জীবনে যেমন জোয়ার-ভাটা আছে, মানুষের জীবনেও আছে। মানুষের সঙ্গে এই জায়গাতেই সমুদ্রের মিল।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ মেয়েদের স্বভাবই হচ্ছে হালকা জিনিস নিয়ে মাতামাতি করা।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ চট করে কারো প্রেমে পড়ে যাওয়া কাজের কথা না। অতি রূপবতীদের কারও প্রেমে পড়তে নেই। অন্যেরা তাদের প্রেমে পড়বে, তা-ই নিয়ম।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ মাঝে মাঝে তুচ্ছ বিষয় চোরাকাঁটার মত মনে লেগে থাকে… ব্যথা দেয় না,অস্বস্তি দেয়….- হুমায়ুন আহমেদ
➢ বাস্তবতা এতই কঠিন যে কখনও কখনও বুকের ভিতর গড়ে তোলা বিন্দু বিন্দু ভালবাসাও অসহায় হয়ে পড়ে।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ যে সব মানুষের নাক সেনসেটিভ হয় তাদের কান কম সেনসেটিভ হয়। প্রকৃতি একটা বেশী দিলে অন্যটা কমিয়ে দেয়।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ মানুষের মন বিচিত্র জিনিস। সমস্ত নক্ষত্র পূঞ্জে যে জটিলতা ও রহস্য তার থেকেও রহস্যময় মানুষের মন।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ মেয়েরা গোছানো মানুষ পছন্দ করে না। মেয়েরা পছন্দ করে অগোছালো মানুষ”- হুমায়ুন আহমেদ
➢ সব মানুষকেই বিনয়কে এদেশে দুর্বলতা মনে করা হয়, বদমেজাজকে ব্যক্তিত্ব ভাবা হয়।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ দুঃসময়ে কোনো অপমান গায়ে মাখতে হয় না। ভালোবাসা ও ঘৃনা দুটাই মানুষের চোখে লিখা থাকে!- হুমায়ুন আহমেদ
➢ যুদ্ধ এবং প্রেমে কোনো কিছু পরিকল্পনা মতো হয় না। ভালবাসাবাসির জন্যে অনন্তকালের প্রয়োজন নেই।একটি মুহূর্তই যথেষ্ট…- হুমায়ুন আহমেদ
➢ মেয়েদের স্বভাবই হচ্ছে হালকা জিনিস নিয়ে মাতামাতি করা।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ মানুষের স্বভাব হলো, কেউ যখন ভালোবাসে তখন নানান কর্মকাণ্ড করে সেই ভালোবাসা বাড়িয়ে দিতে ইচ্ছে করে, আবার কেউ যখন রেগে যায় তখন তার রাগটাও বাড়িয়ে দিতে ইচ্ছা করে।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ ভালবাসার মানুষের সাথে বিয়ে না হওয়াটাই বোধ হয় ভাল।বিয়ে হলে মানুষটা থাকে ভালবাসা থাকে না।আর যদি বিয়ে না হয় তাহলে হয়ত বা ভালবাসাটা থাকে,শুধু মানুষটাই থাকে না। মানুষ এবং ভালবাসা এই দুয়ের মধ্যে ভালবাসাই হয়ত বেশি প্রিয়।- হুমায়ুন আহমেদ
➢ শিকল দিয়ে কাউকেই বেঁধে রাখা হয় না । তারপরেও সব মানুষই কোনও – না – কোনও সময় অনুভব করে তার হাত – পায়ে কঠিন শিকল । শিকল ভাঙতে গিয়ে সংসার – বিরাগী গভীর রাতে গৃহত্যাগ করে । ভাবে ,মুক্তি পাওয়া গেল । দশতলা বাড়ির ছাদ থেকে গৃহী মানুষ লাফিয়ে পরে ফুটপাতে । এরা ক্ষণিকের জন্য শিকল ভাঙার তৃপ্তি পায় ।- হুমায়ুন আহমেদ
আমি ক্রিকেটার, একটা জীবন কি বাঁচাতে পারি? একজন ডাক্তার পারেন। কই, দেশের সবচেয়ে ভালো ডাক্তারের নামে কেউ তো একটা হাততালি দেয় না! তাদের নিয়ে মিথ তৈরি করুন, তারা আরও পাঁচজনের জীবন বাঁচাবেন। তারাই তারকা। তারকা হলেন লেবাররা, দেশ গড়ে ফেলছেন। ক্রিকেট দিয়ে আমরা কি বানাতে পারছি? একটা ইটও কি ক্রিকেট দিয়ে বানানো যায়? একটা ধান জন্মায় ক্রিকেট মাঠে? যারা ইট দিয়ে দালান বানায়, কারখানায় ওটা-ওটা বানায় বা ক্ষেতে ধান জন্মায়, তারকা হলেন তারা–মাশরাফি বিন মর্তুজা নিন্দা করতে গেলে বাইরে থেকে করা যায়, কিন্তু বিচার করতে গেলে ভিতরে প্রবেশ করতে হয় । –রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ মন থেকে যারা কাজ করে না তাঁদের জীবন ফাঁপা। সাফল্যের স্বাদ তাঁরা পায় না।- এ পি জে আবদুল কালাম
➢ মন থেকে যারা কাজ করে না তাঁদের জীবন ফাঁপা। সাফল্যের স্বাদ তাঁরা পায় না।- এ পি জে আবদুল কালাম
➢ সত্যি হওয়ার আগ পর্যন্ত স্বপ্ন দেখে যেতে হবে।- এ পি জে আবদুল কালাম ➢ কেবল বিশেষ সময়ে নয় সবসময় নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করে যেতে হবে।- এ পি জে আবদুল কালাম
➢ তরুণদের নতুন চিন্তা করতে হবে, নতুন কিছু ভাবতে হবে, অসম্ভবকে সম্ভব করতে হবে। তবেই তারুণ্যের জয় হবে।- এ পি জে আবদুল কালাম ➢ এখন বিজ্ঞান জানতে ইংরেজি জানা দরকার। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি দুই দশকের মধ্যে আমাদের ভাষায় বিজ্ঞানচর্চা শুরু হবে। আর তখন আমরা জ্ঞানবিজ্ঞানে জাপানিদের মতো এগিয়ে যাব।- এ পি জে আবদুল কালাম
➢ সেই ভালো শিক্ষার্থী যে প্রশ্ন করে। প্রশ্ন না করলে কেউ শিখতে পারে না। শিক্ষার্থীদের প্রশ্ন করার সুযোগ দিতে হবে।- এ পি জে আবদুল কালাম
পাপকে ঠেকাবার জন্য কিছু না করাই তো পাপ।–রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ আমরা বন্ধুর কাছ থেকে মমতা চাই, সমবেদনা চাই, সাহায্য চাই ও সেই জন্যই বন্ধুকে চাই। –রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ পুরুষের বুদ্ধি খড়গের মতো; শান বেশি না দিলেও কেবল ভারেই অনেক কাজ করতে পারে। মেয়েদের বুদ্ধি কলম-কাটা ছুরির মতো; যতই ধার দাওনা কেনো, তাতে বৃহৎ কাজ চলে না।–রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ ক্ষুদ্রকে লইয়াই বৃহৎ, সীমাকে লইয়াই অসীম, প্রেমকে লইয়াই মুক্তি। প্রেমের আলো যখনই পাই তখনই যেখানে চোখ মেলি সেখানেই দেখি, সীমার মধ্যে সীমা নাই।–রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ জেগে ওঠো, সচেতন হও এবং লক্ষ্যে না পৌঁছা পর্যন্ত থেমো না –স্বামী বিবেকানন্দ
➢ শিমুল কাঠই হোক আর বকুল কাঠই হোক, আগুনের চেহারাটা একই। –রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ ভালোবাসা কথাটা বিবাহ কথার চেয়ে আরো বেশি জ্যান্ত । –রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ কখনো বা চাঁদের আলোতে কখনো বসন্তসমীরণে সেই ত্রিভুবনজয়ী, অপাররহস্যময়ী আনন্দ-মুরতিখানি জেগে ওঠে মনে । –রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ প্রত্যেকটা মন আর একটা মনকে খুজিতেছে নিজের ভাবনার ভার নামাইয়া দিবার জন্য, নিজের মনের ভাবকে অণ্যের মনে ভাবিত করিবার জন্য।–রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ পৃথিবীতে বালিকার প্রথম প্রেমের মত সর্বগ্রাসী প্রেম আর কিছুই নাই। প্রথম যৌবনে বালিকা যাকে ভালোবাসে তাহার মত সৌভাগ্যবানও আর কেহই নাই। যদিও সে প্রেম অধিকাংশ সময় অপ্রকাশিত থেকে যায়, কিন্তু সে প্রেমের আগুন সব বালিকাকে সারাজীবন পোড়ায়।–রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
➢ আপনার সম্পর্কে একটা ম্যুভিতে কি বলা হল কিংবা আপনি কী বলছেন, তাতে অন্যরা খুব একটা গুরুত্ব দিবে না। আপনি কী করেছেন, সবাই সেটি দেখতে চায়।–মার্ক জাকারবার্গ
➢ আপনি যা করছেন, যদি ভালোবাসেন এবং ওই কাজে সফলতার জন্য সবকিছু করতে ইচ্ছুক থাকেন, তাহলে সেটা হাতের নাগালে পৌঁছবে। কাজের পেছনে প্রতিটা মিনিটের মূল্যায়ন প্রয়োজন। ভাবুন আর ভাবুন; যে আসলেই আপনি কি নকশা অথবা তৈরি করতে চাচ্ছেন।–স্টিভ ওজনিয়াক
➢ যদি আমরা একটি কাঙ্ক্ষিত সমাজ কিংবা বিশ্বের কল্পনা করতে না পারি, তাহলে তা কখনোই সত্যি হবে না। সে জন্য আমাদের একটি গন্তব্য দরকার, একটি নির্দেশনা দরকার। তুমি যদি জানো যে তোমাকে কোথায় যেতে হবে, তাহলে তুমি অবশ্যই সেখানে পৌঁছাতে পারবে। তোমার প্রযুক্তি, যোগাযোগ ক্ষমতা তোমাকে সেখানে নিয়ে যাবে–ড. মুহাম্মদ ইউনূস
➢ শিক্ষার উচিত তাকে উদ্যোক্তা বা চাকরি সৃষ্টিকারী হতে প্রস্তুত করা, চাকরি খুঁজতে নয়।…আমরা যদি তরুণদের চাকরি সৃষ্টিকারী হিসেবে গড়ে তুলতাম, তাহলে বেকারত্ব বলে কিছু থাকত না –ড. মুহাম্মদ ইউনূস
➢ ভিন্নভাবে চিন্তা করার ও উদ্ভাবনের সাহস থাকতে হবে, অপরিচিত পথে চলার ও অসম্ভব জিনিস আবিষ্কারের সাহস থাকতে হবে এবং সমস্যাকে জয় করে সফল হতে হবে। এ সকল মহানগুণের দ্বারা তরুণদের চালিত হতে হবে। তরুণ প্রজন্মের প্রতি এই আমার বার্তা।– এ পি জে আব্দুল কালাম
➢ দেশের তুলনায় ক্রিকেট অতি ক্ষুদ্র একটা ব্যাপার। একটা দেশের অনেক ছোট ছোট মাধ্যমের একটা হতে পারে খেলাধুলা; তার একটা অংশ ক্রিকেট। ক্রিকেট কখনও দেশপ্রেমের প্রতীক হতে পারে না। সোজা কথায়-খেলাধুলা হলো বিনোদন –মাশরাফি বিন মর্তুজা
➢ লা কখনও একটা দেশের প্রধান আলোচনায় পরিণত হতে পারে না। দেশের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার আছে যা সমাধান বাকি। সেখানে ক্রিকেট নিয়ে পুরো জাতি, রাষ্ট্র এভাবে এনগেজ হতে পারে না। আজকে আমাদের সবচেয়ে বড় তারকা বানানো হচ্ছে, বীর বলা হচ্ছে, মিথ তৈরি হচ্ছে। এগুলো হলো বাস্তবতা থেকে পালানোর ব্যাপার–মাশরাফি বিন মর্তুজা
➢ রকিবুল ভাই ব্যাটে জয় বাংলা লিখে খেলতে নেমেছিলেন, অনেক বড় কাজ। তার চেয়েও বড় কাজ, বাবার বন্দুক নিয়ে ফ্রন্টে চলে গিয়েছিলেন। শহীদ জুয়েল ক্রিকেট রেখে ক্র্যাক প্লাটুনে যোগ দিয়েছিলেন। এটাই হলো বীরত্ব। ফাস্ট বোলিং সামলানার মধ্যে রোমান্টিসিজম আছে, ডিউটি আছে। বীরত্ব নেই–মাশরাফি বিন মর্তুজা
➢ আমি বলি, এই যারা ক্রিকেটে দেশপ্রেম দেশপ্রেম বলে চিৎকার করে, এরা সবাই যদি একদিন রাস্তায় কলার খোসা ফেলা বন্ধ করত, একটা দিন রাস্তায় থুথু না ফেলত বা একটা দিন ট্রাফিক আইন মানত, দেশ বদলে যেত। এই প্রবল এনার্জি ক্রিকেটের পেছনে ব্যয না করে নিজের কাজটা যদি সততার সঙ্গে একটা দিনও সবাই মানে, সেটাই হয় দেশপ্রেম দেখানো। আমি তো এই মানুষদের দেশপ্রেমের সংজ্ঞাটাই বুঝি না–মাশরাফি বিন মর্তুজা
➢ স্বপ্নবাজরাই সীমা ছাড়িয়ে যেতে পারেন।- এ পি জে আবদুল কালাম

টমাস আলভা এডিসনের উক্তি

আমি আমার জীবনে একদিনও কাজ করিনি, এইসবই মনোরঞ্জন ছিল।- টমাস আলভা এডিসন

জীবনে অসফল হওয়া এমন অনেক মানুষই আছেন যারা এই জিনিসটা বোঝেননা যে, যখন তারা হার মেনে নিয়েছিল তখন তারা সফলতার কতটা কাছে ছিলো।- টমাস আলভা এডিসন

শরীর,নিজের অসংখ্য কোষ বা বাসিন্দাদের দ্বারা তৈরী একটা সম্প্রদায়। – টমাস আলভা এডিসন

আমরা কোনো জিনিসের, একটা শতাংশের ১০ লক্ষ্য ভাগের সম্বন্ধেও কিছুই জানিনা।- টমাস আলভা এডিসন

মাথায় বুদ্ধি কম ছিলো কিন্তু অসংখ্যবার ভুল করার কারণে তা বেড়ে অসংখ্য গুণ হয়ে গিয়েছে। – টমাস আলভা এডিসন

যেকোনো জিনিস যেটা বেচা যাবেনা,সেটাকে আমি আবিষ্কার করতে চাইবো না। সেটার বিক্রি হওয়া উপযোগিতার প্রমাণ, আর উপযোগীতাই হলো সাফল্য। – টমাস আলভা এডিসন

আমি সবচেয়ে বড় খুশি আর নিজের উপহার পাই সেই কাজে, যাকে দুনিয়া সফলতা বলে।- টমাস আলভা এডিসন

বমি অসফল হয়নি,আমি শুধু ১০০০০ এমন সব উপায় খঁুজে বার করেছিলাম যেটা কাজ করেনা।- টমাস আলভা এডিসন

উদ্ভাবনের জন্য,আপনার একটা ভালো কল্পনা আর অপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের স্তুপের প্রয়োজন। – টমাস আলভা এডিসন

কারো অতিত জেনোনা, বর্তমান কে জানো এবং সে জানাই যথার্থ।- টমাস আলভা এডিসন

তারা সব কিছুই প্রাপ্ত করতে পারে, যারা অপেক্ষা করার বদলে প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও কাজ করে যেতে পারে।- টমাস আলভা এডিসন