রক্ত দান নিয়ে উক্তি -রক্তদান নিয়ে স্লোগান

রক্ত দান নিয়ে উক্তি -রক্তদান নিয়ে স্লোগান

 

১. “তুচ্ছ নয় রক্তদান,
বাঁচাতে পারে একটি প্রাণ”

২. “রক্ত দিলে হয়না ক্ষতি,
জাগ্রত করে মানবিক অনুভুতি”

৩. “জীবন বাঁচাতে সহযোগীতা করতে চান,
তাহলে মুমূর্ষ রোগীকে করুন- রক্তদান”

৪. “প্রস্তুত থাকে যদি কমপক্ষে ২ জন রক্তদাতা,
থাকবে গর্ভবতি মায়ের প্রাণের নিশ্চয়তা”

৫. “আমার রক্তে যদি সহযোগিতা করে- মুমূর্ষ রোগীর প্রাণ,
তাহলে আমি কেন করবোনা স্বেচ্ছায় রক্তদান?”

৬. “যদি হই রক্তদাতা,
জয় করবো মানবতা”

৭. “হোক আজ একটি পণ
রক্ত দিয়ে বাঁচাতে সহায়তা করবো রোগীর জীবন”

৮. “মানবতার টানে,
ভয় নেই রক্তদানে”

৯. “আপনার এক ব্যাগ রক্তদান,
বাঁচাতে সহযোগিতা করবে মুমূর্ষ রোগীর প্রাণ”

১০. “ব্যয় করি কিছু সময়,
রক্ত দিয়ে করবো মোরা মানবতার জয়”

১১. “যদি করেন নিয়মিত রক্ত-দান,
রক্তের অভাবে ঝরবেনা একটিও প্রাণ”

১২. “স্বেচ্ছায় রক্তদান করুন,
মুমূর্ষ রোগীর মুখে হাঁসি ফোটান”

১৩. “প্রতিবার রক্ত দিতে গিয়ে-একজন রক্তদাতা,
বিনাখরচে যাচাই করতে পারে-সার্বিক সুস্থতা”

১৪. “সুস্থ থাকলে করুন রক্তদান,
হার্ট এ্যাটাকের ঝুকি কমান”

১৫. “Phone-book এ নামের সাথে রক্তের গ্রুপ সেভ রাখলে,
প্রয়োজনের সময় খুব সহজেই রক্তদাতা মিলে”

১৬. “স্বেচ্ছায় অসহায় রোগীকে রক্ত দিলে,
কোরআনের মতে- সমগ্র জাতীর জীবন বাঁচানোর সওয়াব মিলে”

১৭. “যারা নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর রক্ত দিবে,
তাদের দেহে BLOOD CELL সৃষ্টি বৃদ্ধি পাবে”

১৮. “দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে চান,
তাহলে স্বেচ্ছায় করুন- রক্তদান”

১৯. “পৃথিবীর সবোর্চ্চ সেবা করতে চান,
তাহলে মুমূর্ষ রোগীকে করুন- রক্তদান”

২০. “যারা নিয়মিত রক্ত দিবে,
তাদের রক্তের- কোলেস্টেরল কমবে”

২ ১. “স্বেচ্ছায় রক্তদান করুন,
সামাজিক অঙ্গীকার পালন করুন”

২২. “মনের ভয়কে দূর করুন,
স্বেচ্ছায় রক্তদান করুন”

২৩. “কোন থ্যালাসেমিয়া রোগী যদি হয় আপনজন,
তাহলে আগে থেকেই রক্তদাতা প্রস্তুত রাখুন”

২৪. ”মুমূর্ষু রোগীকে রক্তদিলে,
মানসিক তৃপ্তি মিলে”

২৫. “একজন রক্তদানকারী,
নিঃসন্দেহে সে পরোপকারী”

২৬. “যারা নিয়মিত রক্ত দিবে,
তাদের ক্যান্সারের ঝুকি কমবে”

২৭. “মুমূর্ষ রোগীকে স্বেচ্ছায় রক্ত দিবো,
দালালদের ব্যবসা বন্ধ করবো”

২৮. “রক্ত চাই রক্তদাতার,
দোয়া চাই সকলের”

২৯. “জরুরি রক্তের প্রয়োজনের সময়,
যে কোন গ্রুপই সহজলভ্য নয়”

৩০. “আমার রক্ত আমি দিবো,
অসহায় রোগীকে দিবো”

৩১. “জাতি ধর্ম ও দল নির্বিশেষে,
রক্ত দিবো হেসে হেসে”

৩২. “করিবো মুমূর্ষ রোগীকে রক্তদান,
গাইবো মানবতার জয় গান”

৩৩. “মুমূর্ষ রোগীর প্রাণের টানে,
এগিয়ে আসুন রক্তদানে”

৩৪. “রক্তদাতার সাথে যোগাযোগ রাখুন,
পুনরায় রক্তদানে উৎসাহিত করুন”

৩৫. “কৃত্রিম রক্ত তৈরি করা হয়নি সম্ভব,
প্রয়োজনের সময় দিতে হবে যেকোন মানব”

৩৬. “যদি আপনার বয়স হয় আঠারো,
তাহলে আজই করুন রক্তদানের শুরু”

৩৭. “গর্ভবতির জন্য- ২ জন রক্তদাতা রেডি রাখবো,
রক্তের অভাবে গর্ভবতি মাকে মরতে নাহি দিবো”

৩৮. “রক্তদাতাদের মতো মহৎ মানুষ আছে দেখে,
অসহায় রোগীরা নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখে”

৩৯. “রক্তদানে কোন অজুহাত নয়,
সময় এবং দূরত্ব কিছু নয়”

৪০. “এমন একদিন আসবে,
যেদিন রক্তদাতারা রোগী খুঁজবে”

৪১. “আর নয় মিথ্যে অজুহাত,
জীবন বাঁচাতে রক্ত দিয়ে বাড়াই হাত”

৪২. “আমরা পেরেছি, আমরাই পারবো;
রক্ত দিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাড়াবো”

৪৩. “রোজা রেখে রমজানে,
থেমে থাকবোনা রক্তদানে”

৪৪. “যদি প্রকৃত বন্ধু হতে চাও,
তাহলে মুমূর্ষ রোগীকে রক্ত দাও”

৪৫. “আপনি রক্তদান করে নিজে হাঁসুন,
রোগীর পরিবারকেও হাঁসিখুশি রাখুন”

৪৬. “ঝড়-বৃষ্টি ও তুফান,
থামাতে পারবেনা রক্তদান”

৪৭. “বর্তমানে অসংখ্য রক্তদাতা আছে,
রক্তদানের সময় হলে রোগী খুঁজে”

৪৮. “আপনার রক্তে বাঁচাতে পারে একটি প্রাণ,
যদি সঠিক সময়ে হয় রোগীকে রক্তদান”

৪৯. “মুমূর্ষ রোগীকে দান করি রক্ত,
যাহা আমাদেরই নৈতিক দায়িত্ব”

৫০. “যদি বৃদ্ধি করতে পারি সচেতনতা
তাহলে বাড়বে রক্তদানের প্রবণতা”

৫১. “যদি কাটাতে পারি সামান্য সুঁইয়ের ভয়,
দিতে পারবো মানবতার আসল পরিচয়”

৫২. “মুমূর্ষ রোগীকে বিপদের মুখে ঠেলে দিবোনা,
স্ক্রিনিং টেষ্ট ও ক্রসমেসিং ব্যতিত রক্ত দিবোনা”

৫৩. “রক্তদান কি- তখনই বুঝবেন,
যখন- আপনজনের হয় প্রয়োজন”

৫৪. “যদি রক্তদানে নাহি থাকে যোগ্যতা,
তাহলে করে দিবো রক্তদাতার ব্যবস্থা”

৫৫. “মানুষের ভালোবাসা পেতে চান,
তাহলে অসহায়কে করুন- রক্তদান”

৫৬. “রক্তদানের ডাক- মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দিবো,
অসহায় রোগীদের- মুখে হাসি ফুটাবো”

৫৭. “রক্তদানের যোগ্যতা থাকিলে রক্ত দিবো,
মুমূর্ষ রোগীকে বাঁচার স্বপ্ন দেখাবো”

৫৮. “মুমূর্ষ রোগীকে রক্তদান করি,
অন্যকে রক্তদানে উৎসাহিত করি”

৫৯. “আত্মাকে তৃপ্তি দিতে চান,
মুমূর্ষ রোগীকে করুন রক্তদান”

৬০. “মুমূর্ষ রোগীর জীবনের আহবানে,
এগিয়ে আসুন স্বেচ্ছায় রক্তদানে”

৬১. “নারী-পুরুষ কোন ভেদাভেদ নাই,
যোগ্যতা থাকিলে রক্তদানে বাধা নাই”

৬২. “পরিবারের সবার মন থেকে রক্তদানে ভুল ধারনা ভেঙ্গে দিবো,
তাদের থেকেই পরবর্তিতে রক্তদানে উৎসাহ পাবো”

৬৩. “রক্তদানের নাহি ভয়,
নতুন সম্পর্ক সৃষ্টি হয়”

৬৪. “পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ উপহার দিতে চান,
তাহলে অসহায় রোগীকে করুন রক্তদান”

৬৫. “একটি ন্যায্য ডিগ্রী- মানবতা,
পাবে সেই যে- রক্তদাতা”

৬৬. “ধন্য সেইজন,
যে করে রক্তদান”

৬৭. “রক্তদান করতে গেলে কিছু সময় ও টাকা খরচ হবে,
বিনিময়ে আপনার উছিলায় একটি জীবন রক্ষা পাবে”

৬৮. “এমন কোন মানুষ বলতে পারবেনা,
তাদের আত্মীয়দের রক্তের প্রয়োজন হবেনা”

৬৯. “মুমূর্ষ রোগীদের আশার আলো জ্বালান,
স্বেচ্ছায় করুন রক্তদান”

৭০. “আমার রক্তদাতা বন্ধুরা আছে বলে,
রক্তের জন্য চিন্তা করিনা বললেই চলে”

৭১. “যাদের মধ্যে বিরাজ করে মানবতা,
তাদের মধ্যে অন্যতম হল রক্তদাতা”

৭২. “মানুষের জীবন অনেক মূল্যবান,
তাই অসহায় রোগীকে করি রক্তদান”

৭৩. “পাবো অপরিসীম সম্মান,
করিলে স্বেচ্ছায় রক্তদান”

৭৪. “এক্সিডেন্টের রোগীদের জন্য খুব দ্রুত রক্তের প্রয়োজন হয়,
তাই আশে-পাশের সবার রক্তের গ্রুপ জেনে রাখলে ভালো হয়”

৭৫. “যেদিন প্রতিটি ঘরে অন্তত ১ জন রক্তদাতা থাকবে,
ইনশআল্লাহ্ রক্তের অভাবে আর কেউ নাহি মরবে”

৭৬. “নিঃস্বার্থ ভাবে কোন কাজ করতে চান,
অসহায় রোগীকে স্বেচ্ছায় করুন রক্তদান”

৭৭. “অপরিসীম ভালোবাসা পাবো,
অসহায় রোগীকে রক্ত দিবো”

৭৮. “রক্তের বিকল্প কিছু নাই,
এসো রক্তদানে এগিয়ে যাই”

৭৯. “পরিচিত বা অপরিচিত যেই হোক,
স্বেচ্ছায় রক্তদান হোক সর্বাত্মক”

৮০. “পারস্পরিক রক্তের বন্ধনে,
এগিয়ে আসুন রক্তের আহবানে”

৮১. “মানবতার কল্যাণে,
এগিয়ে আসুন রক্তদানে”

৮২. “ধনী-গরিব, মুসলিম-অমুসলিম নির্বিশেষে;
রক্তের প্রয়োজনে আমরা আছি অসহায়দের পাশে”

৮৩. ”বিয়ের আগে হবু স্ত্রী এবং হবু স্বামীর রক্তের হিমোগ্লোবিন ইলেক্ট্রফোরেসিস পরীক্ষা করে নিলে,
বিয়ের পরে থ্যালাসেমিয়া রোগ থেকে রক্ষা পাবে তাদের সন্তান জন্ম নিলে”

৮৪. “কারো রক্তের প্রয়োজন হলে বসে থাকলে চলবেনা,
আপনার বিপদের দিনে মানুষের অভাব হবেনা”

৮৫. “রক্তদানের কার্যক্রম বেশি বেশি প্রচার করুন,
অন্যদেরকেও রক্তদানে উৎসাহ প্রদান করুন”

৮৬. “রক্তদানে পূণ্য বাড়ে, বাড়ে মনের জোড়;
রক্তদানে এগিয়ে আসুন নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর”

৮৭. “যদি নিজ নিজ অবস্থান থেকে রক্তদান কার্যক্রমে এগিয়ে আসতো,
তাহলে এই দেশে রক্তের অভাবে একটি প্রাণও ঝরে নাহি পরতো”

৮৮. “রক্ত দিয়ে নিজের সুস্থ্যতা যাচাই করুন,
অন্যকে সুস্থ্য হতে সহযোগীতা করুন”

৮৯. “এক ব্যাগ রক্ত, সেতো অমূল্য রতন;
বাঁচাতে সহযোগিতা করে- একটি জীবন”

৯০. “রক্তের বিকল্প- কোন কিছু নাই;
তাই, এসো রক্তদানে এগিয়ে যাই”

৯১. “রক্তদানে ভয় না পেয়ে হাতটা দিন বাড়িয়ে,
রক্তদান মহান দান; সব দানকে ছাড়িয়ে”

৯২. “অসহায় রোগীকে– রক্তদান;
সেতো পৃথিবীর সর্বসেরা দান”

৯৩. “রক্তদানের মতো মহৎ কাজে নিজেকে নিয়োজিত করি;
পাশাপাশি অন্যদেরকেও উৎসাহ প্রদান করি”

৯৪. “নিয়মিত রক্তদান করুন,
উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন”

৯৫. “অসহায় রোগীকে নিয়মিত রক্তদান করুন,
শরীরে আয়রনের পরিমাণ স্বাভাবিক রাখুন”

৯৬. “কারো রক্তে যদি বাঁচাতে সহযোগিতা করে মুমূর্ষ রোগীর প্রাণ;
সেই রক্তদাতা ব্যক্তিতো পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সৌভাগ্যবান”

৯৭. “অসহায় রোগীকে রক্তদানে এগিয়ে আসুন,
সাম্প্রদায়িকতা ভুলে মানবতাকে ভালবাসুন”

৯৮. “অসহায়কে স্বেচ্ছায় রক্তদানে হইওনা কৃপণ;
তোমার রক্তে বাঁচাতে পারে একটি জীবন”

৯৯. “রক্তদানে যোগ্যতা সম্পন্ন মানুষরা যদি অন্ততো তাদের জন্মদিনে রক্ত দিতো;
তাহলে রক্তের অভাবে এই বাংলাদেশে কোন মুমূর্ষ রোগী নাহি মরতো”

১০০ ”রক্তদানের পাশাপাশি আশে-পাশের মানুষগুলোকেও রক্তদানে উৎসাহি করুন;
অসহায় মুমূর্ষ রোগীদের রক্তের ব্যবস্থা করে জীবন বাঁচাতে সহযোগিতা করুন” ।
১০১.
নেই হারাবার কোন ভয়,
নতুন প্রাণের সঞ্চয়,
নিজের রক্ত বইছে অন্যের শিরায়,
মানবতার এইতো পরিচয়…

১০২.
সময় তুমি হার মেনেছো, রক্ত দানের কাছে,
পাঁচটি মিনিট করলে খরচ, একটি জীবন বাঁচে…

১০৩.
সুস্থ মানুষ হলে করুন রক্তদান,
কান্না মুখে হাসি ফোটান…

১০৪.
তুচ্ছ নয় রক্তদান,
বাঁচাতে পারে একটি প্রান…

১০৫.
যদি বয়স তোমার হয় আঠারো,
চাইলে তুমিও রক্ত দিতে পারো…

১০৬.
আপনার একটু সাহায্যেই বাঁচতে পারে একটি প্রাণ,
রক্ত দিন জীবন বাঁচান…

১০৭.
মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য,
তাই রক্ত দিন জীবন বাঁচান…

১০৮.
রক্ত দিতে নাহি ভয়,
রক্ত দিলে স্বাস্থ্য ভালো হয়…

১০৯.
রক্ত দিন, জীবন বাঁচান, মানবতার সেবাই এগিয়ে
আসুন!!”

১১০.
রক্ত হলো খোদার দান,
রক্ত দিয়ে বাঁচাও প্রাণ…

১১১.
রক্তের বন্ধন
ভরে রাখি অঙ্গন

১১২.
রক্ত দিয়েছি একাত্তরে ।
রক্তে পেয়েছি ভাষা ত্রান ।
তার কিঞ্চিৎ রক্ত হলেই ,
বাঁচতে পারে একটি প্রান…

১১৩.
মহান সেই জন,
মানুষকে রক্ত দান করে যেজন…

১১৪.
রক্তের অভাবে ঝড়বে না একটিও প্রাণ এই বাংলায়।

১১৫.
রক্ত দিতে তোরা করিস নে ভয়!
আড়ালে তার একটি পরিবার হাসে

১১৬.
আপনার বাড়িয়ে দেয়া এক ব্যাগ রক্তে হাসতে
পারে আরেকটি প্রাণ…

১১৭.
এক ব্যাগ রক্ত, বাচান একটি প্রান,
নিজেই হবেন সন্তুস্ট, সকলের কাছে মহান…

১১৮.
একমাত্র মানুষই রক্ত দান করে ,
রক্তের অভাবে যেন আর একটি প্রাণও না ঝরে…

১১৯.
মানবতা লুকিয়ে থাকে রক্ত দানের মাঝে,
আসুন সবাই এগিয়ে আসি, এমন সৎ কাজে…

১২০.
রক্ত দিয়ে আমরা গড়ি নতুন জীবন…

১২১.
”নিরাপদ রক্তের জন্য আমরা অঙ্গীকার-বদ্ধ”

১২২.
“রক্তের বন্ধনে, জীবনের আহবানে”

১২৩.
যে করবে রক্তদান,
সেই হবে পূন্যবান।

১২৪.
যতদিন রবে পদ্মা,মেঘনা,গৌরী,যমুনা বহমান,
ততদিন রাখব মানবতার সেবায় রক্তদান চলমান…

১২৫.
”রক্তস্নাত এই বাংলার মাটিতে একটি মানুষও যেন
রক্তের অভাবে মৃত্যুবরণ না করে”

১২৬.
ভয় করলেই ভয়,
সুই ফুটানো ব্যথার নয়…

১২৭.
জীবনের আহবাণ করুন রক্তদান…

১২৮.
“নিয়মিত রক্তদান করে অন্যের বিপদে এগিয়ে
আসুন, আপনার বিপদেও সবাই এগিয়ে আসবে”

১২৯.
১৮ তে এসে,
রক্তদান করুন হেসে…

১৩০.
আম পাতা জোড়া জোড়া,
রক্তদান কর রে তোরা…

১৩১.
যদি করেন রক্ত-দান,
রক্তের অভাবে ঝরবেনা একটিও প্রাণ…

১৩২.
সন্মান মোদের আসবে শত
যদি দেই মোরা ৪৫০ মিলি রক্ত…

১৩৩.
রক্তদানে এগিয়ে আসে যারা,
তাঁরাই সবার চেয়ে হয় যে সেরা…

১৩৪.
জীবন আমাদের রক্তে গড়া, রক্তে গড়া প্রাণ
রক্ত দিয়ে বাঁচাবো মোরা শত শত প্রাণ…

১৩৫.
রক্ত-মাংসে গড়া দেহে থাকিতে মোদের প্রাণ,
একবার নয় বারবার মোরা করিব রক্তদান…
১৩৬.
রক্তবিন্দুতে লেখা যদি থাকে একটি পুণ্য গাথাঁ,
ভয় কেন! সেই জীবনে প্রতি পদে আছে
আশা…

১৩৭.
এখন যৌবন যার,
রক্তদানের শ্রেষ্ঠ সময় তার…

১৩৮.
ফেইসবুকে যেন আটকে না থাকে রক্তদানের
সীমা,
রক্তদান করে মোরা দেখাবো মহিমা…

১৩৯.
আমরা সবাই এক সুরে আজ গাইছি নতুন গান,
রক্ত দিন জীবন বাঁচান…

১৪০.
আমার রক্ত আমি দিব, যারে খুশি তারে দিব…

১৪১.
নিজে রক্ত দিন, অন্যকেও রক্তদানে উৎসাহিত
করুন…

১৪২.
রক্ত দানে নাহি ভয়,
মানবতার জয় হয়…

১৪৩.
রক্তের বাঁধনে গড়ি ঐক্য…

১৪৪.
একের রক্ত অন্যের জীবন
রক্তই হোক আত্নার বাঁধন…

১৪৫.
রক্তের রাজ্যে রাজ্যের রক্ত,
রক্তদান হবে পাকা পোক্ত…

১৪৬.
যত দিন দেহে রক্ত আছে,
আমার রক্তে যেন কারো জীবন বাঁচে…

১৪৭.
আপনার এক ব্যাগ রক্তই পারে অনেক জীবনে
বাচাতে,তাই আসুন নিজে রক্ত দেই অন্যকে রক্ত
দানে উৎসাহিত করি…

১৪৮.
রক্ত বাচায় প্রান,
তাই আসুন করি রক্ত দান…

১৪৯.
উদয়ের পথে শুনি কার বাণী ভয় নাই তার ভয় নাই
নিঃস্বার্থে রক্ত যে করিবে দান ক্ষয় নাই তার ক্ষয়
নাই…

১৫০.
রক্তের বাঁধনে বাধিব জীবন,
আপনার অবদান রোধীবে মরণ…

১৫১.
মোরা একটি প্রাণকে বাঁচাবো বলে,রক্তদান করি…

১৫২.
আল্লাহ বাঁচাবে প্রাণ,আমরা করবো রক্ত দান…

১৫৩.
কে আছো জোয়ান, হউ আগুয়ান,
ভয় সংকোচ ভুলে, করো রক্তদান…

১৫৪.
রোদ ঝড় বৃষ্টি তোরা করিস নে ভয়,
রক্তদানে করবো মোরা মানবতার জয়…

১৫৫.
নিঃশঙ্ক চিত্তে আয় করিয়া শপথ,
রক্তদানে খুঁজবো মোরা জীবনেরই পথ…

১৫৬.
রক্ত তোমার ঘোচাঁতে পারে
আধার কালো রাত
জীবন নামে ফুটাতে পারে
আলোর সু-প্রভাত
দাও সাড়া তাই মানব সেবায়
বাড়িয়ে দিয়ে হাত ।

রক্তদান নিয়ে বাণী

💢প্রস্তুত যদি থাকে দুইজন রক্তদাতা,
থাকবে গর্ভবতী মায়ের প্রানের নিশ্চয়তা…

💢আমার রক্তের বাঁচলে প্রান,
করবো না কেন রক্তদান !!!

💢বায়ান্নতে সালাম রফিক
রক্ত দিল নির্দিধায়
একাত্তরে রক্ত দিল
ত্রিশ লক্ষ শহীদ ভাই
তাঁরা শুধু রক্ত দেয়নি
দিয়েছে নিজের জীবনটাও
জীবন দিতে বলছি না ভাই
জীবন বাঁচাতে রক্ত দাও!

💢এসো করি রক্তদান,
রক্তদানেই মনুষ্যত্বের আসল প্রমান!!

💢নেইত মনে ভয়, রক্ত দিয়ে করি মানুষের মন জয়।

💢জীবন বাঁচে,জীবনের দানে,
রক্ত আমার ফুটাক হাসি, শত ব্যথিত প্রানে।

💢রক্ত দিন,
ভালো থাকুন, ভালো রাখুন ।

💢রক্ত দিলে হয়না ক্ষতি,
জাগ্রত হয় মানবিক অনূভুতি ।

💢ফুটবে মুখে অনাবিল হাসি,
তাই রক্তদান ভালবাসি ।

💢সময় তুমি হেরে গেলে _
রক্ত দানের কাছে ।
পাঁচটি মিনিট করলে খরচ_
একটি জীবন বাঁচে ।

💢”রক্ত দানে নেহি ভয়, মানবতার হবে জয়”।

💢””””একের রক্ত অন্যের জীবন,
রক্ত হোক আত্মার বাঁধন”””

💢এক ব্যাগ রক্ত শুধুএক ব্যাগ রক্ত নয়,
এটি একটি জীবন বেঁচে থাকার অবলম্বন ।
…….মাদার তেরেসা !

💢আপনার শরীরের মূল্যবান অতিরিক্ত এক ব্যাগ রক্ত দিয়ে,
মূমূর্ষ রুগির জীবন বাঁচাতে সহায়তা করুন ।

💢রক্ত দান করলে ব্যাক্তি তার জীবনের প্রতি দায়িত্ব বোধ টা বাড়িয়ে দেয় । সে মনে করে আমি আরো ১টি বছর বেশি বেঁচে থাকতে পারলে ৩জন মানুষের জীবন বাঁচাতে সহযোগীতা করতে পারবো ।

💢দেহের শক্তি দ্বারা সারা জীবন চেষ্টা করলে আপনি কখনো রক্ত দান করতে পারবেন না । কিন্তু মনের শক্তি দ্বারা চেষ্টা করলে আপনি প্রতি ৪মাস পর-পর রক্ত দান করতে সক্ষম ।

Bangla Quote