মুসলিম মণীষীদের সেরা উক্তি

মুসলিম মণীষীদের সেরা উক্তি

  •  পাপের কাজ করে লজ্জিত হলে পাপ কমে যায়, আর পুণ্য কাজ করে গর্ববোধ করলে পুণ্য বরবাদ হয়ে যায়। – হযরত আলী (রাঃ)

যে ব্যক্তি দাবী করে যে, সে এই দুনিয়া ও তার স্রষ্টাকে একই সাথে ভালবাসে সে আসলে মিথ্যা কথা বলে। – ইমাম আশ-শাফি’ঈ জ্ঞান হচ্ছে তা যা উপকার করে, তা নয় যা কেবল মুখস্ত করা হয়। – ইমাম আশ-শাফি’ঈ

 

আমি কখনই কারও সাথে বিতর্কে জয়ী হওয়ার আশায় তর্ক করিনি বরং আমি সবসময় চাইতাম যে সত্যটা তার কাছ থেকে বেরিয়ে আসুক। – ইমাম আশ-শাফি’ঈ তোমার জিহ্বা সম্পর্কে সচেতন হও, এটা বিপজ্জনক! এটা ১টা সাপের মত এবং অনেক লোকই তাদের জিহ্বার দ্বারা মারা গিয়েছে। – ইমাম আশ-শাফি’ঈ

নিজের প্রতি কঠোর হও, অন্যদের প্রতি হও কোমল। – ইমাম আশ-শাফি’ঈ

 

  • কর্মহীন জ্ঞান কেবলই দাম্ভিকতা। – ইমাম আশ-শাফি’ঈ

 

একজন মু’মিনের যত গুণাবলী রয়েছে তার মধ্যে শ্রেষ্ঠ হলো ক্ষমাশীলতা। [আদাব শার’ইয়্যাহ, ১১/১২১]

দুনিয়ার জীবনকে আখিরাতের জন্য বিক্রি করলে আপনি ২ জীবনেই জয়ী হবেন। আখিরাতের জীবনকে দুনিয়ার জন্য বিক্রি করলে আপনি ২ জীবনেই পরাজিত হবেন। [আল হিলইয়াহ, ২/১৪৩]

 

  • এই দুনিয়াতে কল্যাণময় হচ্ছে জ্ঞানার্জন ও আল্লাহর ইবাদাত করা এবং আখিরাতে কল্যাণময় হচ্ছে জান্নাত। অন্তর মাঝে যেসব কুমন্ত্রণা সৃষ্টি হয় এবং দূর হয়ে যায় তা সব শয়তানের পক্ষ থেকে। এসব কুমন্ত্রণা দূর করার জন্য আল্লাহর যিকর ও কুরআন তিলাওয়াতের সাহায্য নেয়া উচিত। আর যেসব কুমন্ত্রণা স্থায়ী হয়ে যায়, বুঝতে হবে তা নফসের পক্ষ থেকে। আর তা দূর করার জন্য সলাত, সাওম এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলনের সাহায্য নেয়া উচিত। [তাবিঈদের জীবনকথা, ড. মুহাম্মদ আবদুল মাবুদ, ১/৫৬]

 

মন্দের মূল তিনটি এবং শাখা ছয়টি। মূল তিনটি হলো – ১) হিংসা-বিদ্বেষ, ২) লোভ-লালসা এবং ৩) দুনিয়ার প্রতি ভালোবাসা। আর শাখা ছয়টি হলো – ১) নিদ্রা, ২) পেট ভরে খাওয়া, ৩) আরাম-আয়েশ, ৪) নেতৃত্ব, ৫) প্রশংসা পাওয়া ও ৬) গর্ব-অহংকারের প্রতি আকর্ষণ ও ভালোবাসা। [তাবিঈদের জীবনকথা; ড. মুহাম্মদ আবদুল মাবুদ, ১/৫৭]

 

  • আমি এমন মানুষদের (সাহাবা) সান্নিধ্য , অর্জন করেছিলাম যারা তাদের কোন, সৎকাজকে ছেড়ে দেয়া যতটা ভয় , করতেন তা তোমরা তোমাদের পাপকাজের , পরিণামকে যতটুকু ভয় কর তার চাইতেও বেশি। এক ব্যক্তি হাসান আল বাসরীকে (রাহিমাহুল্লাহ) জিজ্ঞাসা করলো, “ইবলিশ কি কখনো ঘুমায়?” তিনি বললেন, “সে যদি ঘুমাতো, তাহলে আমরা একটু অবসর পেতাম। [ইবনে আল জাওযি; ‘তালবিসু ইবলিস’, পৃষ্ঠা ৫২]

 

সুন্দর বিদায় হলো ক্ষতি না করে বিদায় নেয়া, সুন্দর ক্ষমা হলো বকা না দিয়ে ক্ষমা করা, সুন্দর ধৈর্য্য হলো অভিযোগ না রেখে ধৈর্য্য ধারণ করা। – ইবনে তাইমিয়্যাহ

  • ১ জন মানুষের অন্তর যদি রোগগ্রস্ত না হয় তাহলে সে কোনদিন, কোন অবস্থাতেই আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা ছাড়া অন্য কাউকে ভয় পাবে না। – ইবনে তাইমিয়্যাহ

 

যখন কোন ছেলে এবং মেয়ে মেলামেশা করে, তখন তা হয় আগুন এবং কাঠ সংস্পর্শে রাখার মতন। – ইবনে তাইমিয়্যাহ

 

  • আপনি যদি খুব ভালো ১টা জীবন পেতে চান, কখনো ভুলবেন না যে আপনি ১দিন মরে যাবেন। – তারিক রামাদান

 

আপনি আজকে যা করছেন তা হয়ত আমি পছন্দ করিনা, but তাই বলে আমি আপনাকে ছোট করবো না। কারণ, আগামীকালের আপনি আপনি হয়ত আজকের আমার চাইতে ভালো হবেন। – তারিক রামাদান

 

  • উত্তম চরিত্র সব সময় ১টি প্রশ্ন দ্বারা শুরু হয়, আমি কেন এটা করছি? – তারিক রামাদান

 

আপনি কীভাবে আল্লাহর সাথে ভাল সম্পর্ক স্থাপন করবেন, যদি আপনার মায়ের আপনার ভাল সম্পর্ক না থাকে? – তারিক রামাদান

 

  • ভণ্ডরা গুজবে বিশ্বাস করে, বিশ্বাসীরা আপনার প্রতি বিশ্বাস রাখে। – শাইখ আব্দুলবারি ইয়াহইয়া

১ জন ঘুমন্ত ব্যক্তি আরেকজন ঘুমন্ত ব্যক্তিকে জাগ্রত করতে পারে না। – শেখ সাদী

 

  • সৎ কাজ অল্প বলে চিন্তা করো না, বরং অল্পটুকুই কবুল হওয়ার চিন্তা কর। – হযরত আলী (রাঃ)

 

আপনার দ্বারা নেক কাজ সাধিত হলে আল্লাহ তা’আলার প্রশংসা করুন এবং যখন অসফল হবেন তাঁর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করুন। – হযরত আলী (রাঃ)

 

  • যদি কেউ আপনার ভুল শুধরে দেয়, আর আপনি ক্ষুব্ধ হন, তাহলে বুঝবেন আপনার ইগো সমস্যা আছে। – উস্তাদ নু’মান আলী খান

 

ভণ্ডরা ভাল উপদেশকে অপমান হিসেবে গ্রহণ করে। – উস্তাদ নু’মান আলী খান

 

আপনি যখন কাউকে সাহায্য করার সুযোগ পেয়ে থাকেন, তখন আনন্দিত হোন এই জন্য যে আল্লাহ ঐ ব্যক্তির দোয়ার সাড়া আপনার মাধ্যমেই দিচ্ছেন। – উস্তাদ নু’মান আলী খান

 

★★★সহসা জ্বলে উঠার মাঝেই নিভে যাওয়ার উপযুক্ত কারণ ও ভয় বিদ্যমান।-মাওলানা আবদুল হাই

আরো পড়ুন  সুখ নিয়ে উক্তি
Bangla Quote